'জনগণের সেবায় নিজেদের আত্মনিয়োগ করুন'

 প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

সাংবিধানিক অনুশাসন মেনে এবং দায়বদ্ধতার প্রত্যয় নিয়ে জনগণের সেবায় নিজেদের আত্মনিয়োগ করার জন্য সরকারি কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ (বুধবার) রাজধানীর শাহবাগে বিসিএস প্রশাসন একাডেমিতে ১১৯তম এবং ১২০তম আইন ও প্রশাসন প্রশিক্ষণ কোর্সের সমাপনী ও সনদ বিতরণী অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে প্রধানমন্ত্রী এ আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, মাঠ পর্যায়ে আপনাদের কাজ করতে হবে জনগণের সেবক হিসেবে। দেশের মালিক জনগণ, আমাদের সংবিধানের সপ্তম অনুচ্ছেদে এ কথাটা বলা আছে। সংবিধানের ২১ এর দুই অনুচ্ছেদ অনুযায়ী সরকারি কর্মচারীরা সার্বক্ষণিকভাবে জনগণের সেবা প্রদানে বাধ্য।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আমি আশা করি আপনারা সাংবিধানিক এ দায়বধ্যতার প্রতি বিশ্বাস থেকে জনগণের সেবায় নিজেদের আত্মনিয়োগ করবেন। নাগরিক সেবায় উদ্ভাবন, সেবাবান্ধব প্রশাসন গড়ে উঠুক এটাই সবার কাম্য। আইন ও প্রশাসন থেকে অর্জিত জ্ঞান কাজে লাগিয়ে সময়পোযোগী প্রশাসন গড়ে তুলে আইনের যথাযথ প্রয়োগের মাধ্যেমে সুশাসন প্রতিষ্ঠায় আপনারা নিবেদিত থাকবেন। জনগণের পাশে থাকবেন, মানুষ যেন ন্যায় বিচার পায় এটি নিশ্চিত করবেন।

প্রধানমন্ত্রী সরকারী কর্মকর্তাদের স্মরণ করিয়ে দেন, সব সময় এটা মাথায় রাখতে হবে এ দেশ আমাদের। এ মাটি আমাদের। এ মানুষ আমাদের। তাদের ভাগ্য পরিবর্তন করা এবং একটা সুন্দর জীবন দেওয়াটাই হচ্ছে লক্ষ্য। আর সেই লক্ষ্য পূরণে মূল চালিকা শক্তি হচ্ছে, এই মাঠ প্রশাসন। কাজেই আপনারা আপনাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব সেভাবে পালন করবেন। এটাই আমি চাই।

শেখ হাসিনা আরও বলেন, আমি জানি অনেকেই এ করোনাকালে মানুষের সেবা করতে গিয়ে জীবন পর্যন্ত দিয়েছেন। প্রশাসনের সবাই টিকাদান কর্মসূচিতে অত্যন্ত আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছেন এবং টিকা দিয়ে যাচ্ছেন। এতো সুন্দরভাবে টিকাদান কর্মসূচিগুলো চলছে, সেজন্য সবাইকে আমার আন্তরিক ধন্যবাদ। এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানাই।

তিনি বলেন, আমি পৃথিবীর অনেক দেশে দেখেছি টিকা নিয়ে অনেক ঝামেলা হয়েছে, সমস্যা হয়েছে; এমনও হয়েছে একজন এক ডোজ পেয়েছে হয়তো ছয় মাস হয়ে গেছে দ্বিতীয় ডোজ পাচ্ছে না। বাংলাদেশে কিন্তু আমরা পরিকল্পিতভাবেই টিকা দিয়ে যাচ্ছি।

পাঠকের মন্তব্য