নিউইয়র্ক সিটি কাউন্সিলে ইমিগ্রেশনের সভাপতি নির্বাচিত শাহানা হানিফ

শাহানা হানিফ

শাহানা হানিফ

হাকিকুল ইসলাম খোকন ,যুক্তরাষ্ট্র সিনিয়র প্রতিনিধিঃ নিউইয়র্ক  সিটি কাউন্সিলে ইমিগ্রেশন কমিটির সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কাউন্সিলওম্যান শাহানা হানিফ। ২০ জানুয়ারি সিটি কাউন্সিল বাপসনিউজকে এ খবর জানিয়েছে।

শাহানা হানিফ কাউন্সিল ডিস্ট্রিক্ট-৩৯ থেকে গত নভেম্বরের নির্বাচনে ডেমোক্র্যাটিক পার্টির টিকিটে জয়ী হয়েছেন। নিউইয়র্ক সিটি কাউন্সিলে এর আগে আর কোনো বাংলাদেশী আমেরিকান জয়ী হতে পারেননি। নতুন দায়িত্বে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল ও স্টেট সরকারের ইমিগ্রেশন বিষয়ে যে কোনো নীতি দেখভালের জন্য কাউন্সিলের কমিটিতে সভাপতিত্ব করবেন।

এই সিটির ইতিহাসে প্রথম মুসলমান নারী এবং প্রথম বাংলাদেশি-আমেরিকান হিসেবে শাহানা হানিফ ইমিগ্রেশন কমিটির সভাপতি নির্বাচিত হবার পর এক  বিবৃতিতে বলেছেন, “আমি একজন পরিশ্রমী বাংলাদেশী দম্পতির সন্তান হতে পেরে গর্বিত এবং সম্মানিত বোধ করছি,” শাহানা হানিফ বলেছেন, শহরের ইতিহাসে প্রথম মুসলিম মহিলা এবং এই পদে অধিষ্ঠিত আমিই প্রথম বাংলাদেশি-আমেরিকান ৷ লক্ষ লক্ষ অভিবাসী নিউইয়র্ক শহরে তাদের আপন ভুবন হিসেবে গ্রহণ করেছেন। এমতাবস্থায় অভিবাসন সংক্রান্ত কমিটির চেয়ারপার্সন হয়ে আমি বিনা দ্বিধায় সবার সমস্যার কথা শুনব এবং সমাধানে যথাযথ পদক্ষেপ নিতে কার্পণ্য করব না। অভিবাসীদের সম্মান ও মর্যাদা রক্ষায়ও আমি সোচ্চার থাকব। 

শাহানা বলেন, সিটি মেয়র অফিসের ইমিগ্রেশন কর্মকর্তারা যাতে তাদের দায়িত্ব আন্তরিকভাবে ও সঠিকভাবে পালন করেন, তাও আমি নিশ্চিত করব।  তিনি বলেন কিন্তু এখানেই শেষ নয়! আমি কাউন্সিলের আরও পাঁচটি কমিটির সদস্য হব। সরকারী কার্যক্রম থেকে মানসিক স্বাস্থ্য,  প্রতিবন্ধী এবং আসক্তি পর্যন্ত। আমি আমাদের প্রয়োজনীয় বর্ণবাদবিরোধী নারীবাদী শহর নির্মাণে কাজ করার জন্য প্রস্তুত রয়েছি। 

শাহানা হানিফ যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের অন্যতম সদস্য এবং চট্টগ্রাম সমিতির সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ হানিফের জ্যেষ্ঠ কন্যা।

পাঠকের মন্তব্য