লালমনিরহাটে ধর্ষণের পর শিশুকে ৫ টাকা দিলেন ইমাম

গ্রেফতারকৃত ইমাম ছপিত উল্লাহ মুন্সি

গ্রেফতারকৃত ইমাম ছপিত উল্লাহ মুন্সি

লালমনিরহাটের আদিতমারীতে বাড়িতে একা পেয়ে সাত বছরের এক শিশুকে ধর্ষণ করেছেন ইমাম। এমনকি ধর্ষণের ঘটনা কাউকে বলার জন্য তাকে ৫ টাকা দেন তিনি।

মঙ্গলবার সকালে ঐ উপজেলার সারপুকুর ইউনিয়নের দেল্লারমোর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ধর্ষণের শিকার শিশুর বাবার মামলায় বুধবার রাতে ছপিত উল্লাহ মুন্সি নামে ঐ ইমামকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত ইমাম ছপিত উল্লাহ মুন্সি ঐ এলাকার ওসুল খার ছেলে।

জানা গেছে, মঙ্গলবার সকালে বাবা-মা কাজে গেলে বাড়িতে একা পেয়ে শিশুটিকে ধর্ষণ করেন ছপিত উল্লাহ্র মুন্সি। পরে ধর্ষণের কথা কাউকে না বলার জন্য  শিশুটিকে পাঁচ টাকা দেন তিনি। এছাড়া পরবর্তীতে বিষয়টি জানাজানি হলে শিশুটির বাবা যেন থানায় যেতে না পারেন সেজন্য তাদের আটকে রাখে একটি দালাল চক্র। খবর পেয়ে সাংবাদিকরা ছুটে গেলে দালালরা পালিয়ে যায়। পরে সাংবাদিকদের সহযোগিতায় শিশুটিকে অসুস্থ অবস্থায় লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আদিতমারী থানার ওসি মোক্তারুল ইসলাম বলেন, ঘটনা শোনার পর পরই আমরা শিশুটির বাবাকে থানায় ডেকে নেই। পরে আসামি ছপিত উল্লাহ মুন্সিকে গ্রেফতার করা হয়।

পাঠকের মন্তব্য