চট্টগ্রাম চন্দনাইশে অভয়ারণ্য অঞ্চলের গাছ চুরি

চট্টগ্রাম চন্দনাইশে অভয়ারণ্য অঞ্চলের গাছ চুরি

চট্টগ্রাম চন্দনাইশে অভয়ারণ্য অঞ্চলের গাছ চুরি

খালেদ রায়হা, চন্দনাইশ প্রতিনিধি : চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলার দুর্গম পাহাড়ি এলাকা বন্য প্রাণীর অভয়ারণ্য অঞ্চল ধোপাছড়ি ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডস্থ শামুখ ছড়ি ছিদ্দিকার ঘোনা হতে  বুধবার প্রায় ৪০টি সেগুন গাছ কেটে নিয়ে গেছে বন খেকোরা। 

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায় ,মোহাম্মদ পুর গ্রামের বাসিন্দা গোলাম রসুল বাবুল গংয়ের দীর্ঘদিনের বন্দোবস্তীকৃত শামুক ছড়ি ছিদ্দিকার ঘোনায় ১৪ একর ৪৪ শতক পাহাড়ি ভূমিতে সেগুন গাছের বিশাল  বাগান সহ আম, লেবুর বাগান করেন এবং  বাগান দেখাশুনার জন্য আবদুল শুক্কুর নামের এক ব্যক্তিকে তত্বাবধানের দায়িত্বে  রাখা হয়। মানুষ ঈদ উৎসবে ব্যস্ত থাকার সুবাধে আবদুর রহিম ও আবদুল গনি মাষ্টার নামের কতিপয় বন খেকো বাগান হতে ৪০টি সেগুন গাছ কেটে নিয়ে যায়। যার আনুমানিক মূল্য ৪০ লাখ টাকা।

স্থানীয় ইউপি সদস্য টিপু দাশ সত্যতা স্বীকার করে বলেন সম্প্রতি এলাকায় বন খেকোদের উপদ্রব বৃদ্ধি পেয়েছে। বন রক্ষা করতে সংশ্লিষ্ট বিভাগের সু-দৃষ্টি কামনা করেন তিনি।

এ ঘটনায় বাগান মালিক গোলাম রসুল বাবুল বাদি হয়ে  ৭ জনের নাম উল্লেখ করে চন্দনাইশ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এ ব্যাপারে ধোপাছড়িস্থ সাঙ্গু বিট কর্মকর্তা নুরুল হকের সাথে মুটো ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানান।

পাঠকের মন্তব্য