গলাচিপায় ভোটার তালিকা হালনাগাদ শুরু ২০ মে 

গলাচিপায় ভোটার তালিকা হালনাগাদ শুরু ২০ মে 

গলাচিপায় ভোটার তালিকা হালনাগাদ শুরু ২০ মে 

সারাদেশের ন্যায় গলাচিপা উপজেলায় ২০ মে থেকে শুরু হচ্ছে ছবিযুক্ত ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম। তবে এবারের হালনাগাদ কার্যক্রম চলবে দুই ধাপে। প্রথম ধাপে উপজেলার ১২ টি ইউনিয়নে ৯ জুন পর্যন্ত চলবে এই কার্যক্রম। এরপর ১০ জুন থেকে শুরু হবে ইউনিয়ন ভিত্তিক ধাপে ধাপে নিবন্ধন কার্যক্রম (ছবি তোলা)। ৩০ জুলাইয়ের মধ্যে এই ধাপের নিবন্ধন কার্যক্রম শেষ হবে। 

উপজেলা নির্বাচন কমিশনের তথ্য অনুযায়ী, ভোটার তালিকা হালনাগদকরণে তথ্য সংগ্রহকারী ও সুপারভাইজারা বাড়ী বাড়ী গিয়ে ভোটার তালিকায় নাম অন্তর্ভূক্ত করবে। তথ্য নেওয়ার পর সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে নির্দিষ্ট তারিখে কেন্দ্রে গিয়ে আঙুলের ছাপ, চোখের আইরিশ ও ছবি তুলে নিবন্ধন কার্যক্রম সম্পন্ন করতে হবে। এরপরও যারা ভোটার হতে পারবে না তারা স্ব-শরীরে উপজেলা নির্বাচন অফিসে যোগাযোগ করে ভোটার হতে পারবেন। এ পর্যায়ে যাদের বয়স ০১ জানুয়ারি ২০০৭ বা তার পূর্বে অর্থাৎ যাদের বয়স ১ জানুয়ারী ২০২৫ সালে ১৮ বছর পূর্ণ হবে তারা ভোটার তালিকাভুক্ত হতে পারবেন। এই কর্মসূচিতে ভোটার তালিকা থেকে মৃত ভোটারের নাম কেটে দেওয়া হবে এবং আবাসস্থল পরিবর্তনের কারণে ভোটার এলাকা স্থানান্তরের বিষয়েও কার্যক্রম চলবে।

এছারা যে সকল প্রাপ্ত বয়স্ক লোক পূর্বের তালিকায় নাম লিপিবদ্ধ করাতে পারেননি ডাদেরও নাম অন্তর্ভুক্ত হবে। তবে ইতোপূর্বে যারা ভোটার হয়েছেন কোনভাবেই তাদের দ্বিতীয়বার ভোটার হওয়ার সুযোগ নেই। একাধিকবার ও একাধিক জায়গায় ভোটার হওয়া দন্ডনীয় অপরাধ বলে বিবেচ্য হবে। 

যাদের জন্মতারিখ ০১ জানুয়ারি ১৯৯৭ বা তার পূর্বে ভারা ইতিপূর্বে ভোটারডালিকায় অন্তর্ভুক্ত হওয়ার সুযোগ পাওয়া সত্ত্বেও অন্তর্ভুক্ত না হওয়ার কারণে সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসারের কার্যালয়ে আবেদনকারীকে স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে AFIS যাচাই এর প্রত্যয়ন সংগ্রহ করে নিবন্ধন ফরম-২ এর সাথে সংযুক্ত করতে হবে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর হোসেন জানায়, বয়স ১৮ না হলেও জাতীয় পরিচয়পত্র দেওয়া হবে। যাদের বয়স ১৮ হয়নি, তাদের বয়স ১৮ বছর হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভোটার তালিকায় তাদের নাম যুক্ত হয়ে যাবে। ২০২৪ ও ২০২৫ সাল নাগাদ তারা ভোটার তালিকায় যুক্ত হয়ে যাবেন। এ উপজেলায় প্রথম ধাপে ২০ মে থেকে ৯ জুন পর্যন্ত ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম চলবে। গলাচিপা পৌরসভার ভোটারদের ১০,১১,১২ জুন ২০২২ এই ৩ দিন পৌর ভবনে ছবি তোলা হবে এরপর ধাপে ধাপে ইউনিয়নে নির্দিষ্ট দিনে, নির্ধারিত স্থানে ছবি তোলা কার্যক্রম চলবে।

ইসি সূত্র জানায়, সরকার তৃতীয় লিঙ্গ জনগোষ্ঠীকে 'হিজড়া লিঙ্গ' হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। ফলে এবারও হিজড়া পরিচয়ে তারা ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হতে পারবেন। তবে এ জনগোষ্ঠীকে ভোটার হিসেবে নিবন্ধনের ক্ষেত্রে তাদের শনাক্তকরণের জন্য সমাজসেবা অফিসের প্রত্যয়ন অথবা স্থানীয় জনপ্রতিনিধির প্রত্যয়ন লাগবে।

যেসব কাগজপত্র লাগবে ভোটার হতে- নিবন্ধনের লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির পূরণকৃত নিবন্ধন ফরম-২ এর সঙ্গে অনলাইন জন্মসনদ (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) অথবা এসএসসি বা সমমান পরীক্ষা বা যেকোনো পাবলিক পরীক্ষায় পাসের সনদের ফটোকপি প্রয়োজন হবে।

এছাড়া অন্যান্য কাগজপত্র যেমন নাগরিক সনদ, প্রত্যয়নপত্র/বাড়ি ভাড়া/হোল্ডিং ট্যাক্স/যেকোনো ইউটিলিটি বিল পরিশোধের রসিদের কপি জমা দিয়ে নিবন্ধন সম্পন্ন করতে হবে।

উল্লেখ্য, সর্বশেষ ২০১৯ সালে বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটারদের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছিল। ওই সময় একসঙ্গে তিন বছরের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছিল।প্রথম ২০০৭-২০০৮ সালে ছবিসহ ভোটার তালিকা কার্যক্রম শুরু করে ইসি। বর্তমানে দেশে ভোটার সংখ্যা ১১ কোটি ৩২ লাখ ৮৭ হাজার ১০ জন। এর মধ্যে ৫ কোটি ৭৬ লাখ ৮৯ হাজার ৫২৯ জন পুরুষ, ৫ কোটি ৫৫ লাখ ৯৭ হাজার ২৭ জন নারী ভোটার এবং ৪৫৪ জন হিজড়া ভোটার রয়েছেন।

পাঠকের মন্তব্য