সংখ্যালঘু পরিবারের উপর হামলা, কাউন্সিলর গ্রেফতার

সংখ্যালঘু পরিবারের উপর হামলা, কাউন্সিলর গ্রেফতার

সংখ্যালঘু পরিবারের উপর হামলা, কাউন্সিলর গ্রেফতার

মাদারীপুরের কালকিনিতে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে পুলিশের উপস্থিতিতেই সংখ্যালঘু পরিবারের উপর হামলার ঘটনায় অভিযুক্ত কাউন্সিলর আনোয়ার বেপারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

শুক্রবার ভোরে কালকিনি পৌরসভার নয়াকান্দি নিজবাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাকে মাদারীপুর আদালতে পাঠায় পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শীর মোবাইলে ধারণকরা ভিডিওতে দেখা যায়, জমি নিয়ে বিরোধের জেরে কালকিনি পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার বেপারী দীর্ঘদিন ধরে প্রতিবেশি ঝন্টু মন্ডল ও তার পরিবারকে হুমকি দিয়ে আসছিল। বুধবার দুপুরেও হুমকি দিলে কালকিনি থানা পুলিশকে খবর দিয়ে আনা হয়। কিন্তু পুলিশের উপস্থিতিতেই কাউন্সিলর আনোয়ার বেপারী, তার স্ত্রী রিক্তা বেগম ও সমর্থকরা হামলা চালায় নয়াকান্দি গ্রামের কৃষক ঝন্টু মন্ডল ও তার পরিবারের উপর। এতে ঝন্টু, তার স্ত্রী উর্মিলা, ছেলে উজ্জল ও মেয়ে রুম্পা গুরুতর আহত। পরে তাদের উদ্ধার করে কালকিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। 

এই ঘটনার ধারণকরা ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে সমলোচনার ঝড় ওঠে। পরে কালকিনি থানায় বৃহস্পতিবার রাতে ঝন্টুর ছেলে উজ্জল বাদী হয়ে ৩জনের নামে একটি হত্যাচেষ্টা মামলা করেন। পরে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত কাউন্সিলর আনোয়ার বেপারীকে গ্রেফতার করা হয়।

মাদারীপুরের কালকিনি থানার ওসি ইশতিয়াক আশফাক রাসেল জানান, ঝন্টু ও তার পরিবারের উপর হামলার ঘটনায় কাউন্সিলরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

পাঠকের মন্তব্য