বন্যার্তদের মানবিক সাহায্যে এগিয়ে এলো জেলা পুলিশ  

সিলেট জেলা পুলিশ

সিলেট জেলা পুলিশ

দ্রুত বন্যার্ত মানুষকে উদ্ধার ও খাদ্য সংকট মোকাবেলা পরিস্থিতি শাসাল দিতে এগিয়ে এসেছে সিলেট জেলা পুলিশ। 

বাংলাদেশ পুলিশের আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ বিপিএম-বার'র নির্দেশে পুলিশ সুপার (অতিরিক্ত ডিআইজি) মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম'র প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে সিলেট  জেলা পুলিশের সদস্যরা কয়েক দিন ধরে সর্বোচ্চ আন্তরিকতার সাথে সাধারণ মানুষকে পানিবন্দি অবস্থা  থেকে উদ্ধার করে নিরাপদ আশ্রয় কেন্দ্রে পৌঁছে দিচ্ছে। সেই সঙ্গে রান্না করা খাবার বিতরণ এবং বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।

এরই ধারাবাহিকতায় রোববার (১৯ জুন) গোয়াইনঘাটের সহকারী পুলিশ সুপার প্রবাস কুমার সিংহ,  কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকান্ত চক্রবর্তী ও  প্রবাসী কল্যাণ শাখার ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক শ্যামল বণিক জেলা পুলিশ লাইনসে রান্না করা খিচুড়ি কোম্পানীগঞ্জ থানাধীন ফেদারগাও উচ্চ বিদ্যালয় আশ্রয় কেন্দ্রে প্রায় কয়েকশ মানুষের মধ্যে খাবার বিতরণ করেন।  আশেপাশের পানিবন্দি মানুষের মধ্যে তৈরি করা খাবারের প্যাকেট বিতরণ করা হয়।

গোলাপগঞ্জে সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পরিত্রান চাকমার নেতৃত্বে রান্না করা খাবার বিতরণ করা হয়। এছাড়া জৈন্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) নেতৃত্বে উপজেলার এলাকার বিভিন্ন আশ্রয় কেন্দ্রসহ বন্যার্ত মানুষের মাঝে খাদ্য এবং ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন পুলিশ সদস্যরা। গোয়াাইনঘাট এবং বিশ্বনাথের বিভিন্ন স্থানে রান্না করা খাবার বিতরণ করে গোয়াইনঘাট থানার পুলিশ সদস্যরা।

তথ্যটি নিশ্চিত করে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (জেলা বিশেষ শাখা এবং মিডিয়া) মো. লুৎফর রহমান জানান,  যে সিলেট জেলা পুলিশের সদস্যরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সিলেটের বন্যার্ত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। নিয়মিত আইনশৃঙ্খলা রক্ষার পাশাপাশি বন্যা দুর্গত মানুষের জন্য জেলা পুলিশের খাদ্য ও ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

পাঠকের মন্তব্য