সকলকে বন্যা দুর্গতদের পাশে দাঁড়াতে হবে : মোস্তফা ভুইয়া

এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া, বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব

এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া, বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব

সিলেট, সুনামগঞ্জ, কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, শেরপুর, নেত্রকোনাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় স্মরণকালের ভয়াবহ বন্যায় উদ্বেগ প্রকাশ করে বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেছেন, রাজনৈতিক কাঁদা ছোড়াছুড়ি বাদ দিয়ে দেশের সকল মানুষকে দল-মত নির্বিশেষে দুর্গতদের পাশে দাঁড়াতে হবে। এটিই হচ্ছে এখন প্রধান রাজনীতি। মনে রাখতে হবে মানুষের কল্যানের জন্যই রাজনীতি।  

বুধবার (২২ জুন) রাজধানীর নয়াপল্টনের যাদু মিয়া মিলনায়তনে বাংলাদেশ ন্যাপ'র উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য নাজহাত গানি শবনমের ১০ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ আয়োজিত স্মরণসভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।  

তিনি মরহুমা নাজহাত গানি শবনমরে অমর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, দেশের নারী সমাজের স্বাধীনতা ও অধিকার প্রতিষ্ঠায় তার অবদান শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করতে জাতি। কর্মীবান্ধব এমন রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্ব আজ বড়ই অভাব।

দেশবাসীকেও এই বানভাসী মানুষের পাশে সর্বাত্মকভাবে দাঁড়ানোর জন্য আহ্বান জানিয়ে তিনি আরো বলেন, দুর্নীতি, সরকারের অপরিকল্পিত উন্নয়ননীতি ও প্রকৃতিবিরোধী প্রকল্পের কারণে একদিকে পরিবেশ ধ্বংস হচ্ছে, অপরদিকে একই বাঁধ প্রতিবছর ভাঙছে। অভিন্ন নদীসহ দেশের নদীগুলোতে বাঁধ দেওয়া, পানির ন্যায্য হিস্যা না পাওয়ার কারণে নদীগুলোর নাব্য ধ্বংস হয়েছে।

তিনি বলেন, নদীর পানি প্রবাহে বাঁধার সৃষ্টি করা যাবে না, বরং নদী-খাল-বিল-হাওর-বাঁওড় খনন করার দ্রæত উদ্যোগ নিয়ে দেশকে রক্ষা করতে হবে। ভারতের সঙ্গে জরুরি বৈঠকের মাধ্যমে পানির সমস্যা সমাধানের ব্যবস্থা করতে হবে।

বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া'র সভাপতিত্বে স্মরণ সভায় আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ লেবার পার্টি চেয়ারম্যান হামদুল্লাহ আল মেহেদী, এনডিপি মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, দলের ভাইস চেয়ারম্যান স্বপন কুমার সাহা, সাংগঠনিক সম্পাদক ও জাতীয় নারী আন্দোলন সভাপতি মিতা রহমান, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক মো. আমজাদ হোসেন, ঢাকা মহানগর সহ-সভাপতি শফিকুল আলম শাহীন, প্রচার সম্পাদক বাদল দাস প্রমুখ।

পাঠকের মন্তব্য