কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে গত কয়দিনের টানা বর্ষণ আর উজানের ঢলে সৃষ্ট বন্যায় পানিবন্দী হয়েছেন নিম্নাঞ্চলের মানুষ। এবারের বন্যায় উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের মধ্যে ৫টি ইউনিয়নের নিচু এলাকা প্লাবিত হয়েছে। বন্যায় পানিতে তলিয়ে গেছে রাস্তা-ঘাট। অনেকের বসতঘর পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় আশ্রয় নিয়েছেন আশ্রয়কেন্দ্রে কেউবা বেরিবাঁধে। গবাদিপশু নিয়ে বিপাকে পড়েছেন অনেকেই। দুর্দশায় দিনযাপন করছেন বন্যাকবলিত এলাকার মানুষ।

এই যখন অবস্হা তখন বন্যাকবলিত এলাকায় জরুরী ত্রাণ সহায়তা নিয়ে পাশে দাঁড়িয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। মঙ্গলবার (২১জুন) বিকালে থেকে রাত পর্যন্ত  উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়নে বন্যাকবলিত এলাকার ৫০০টি পরিবারের মাঝে জি আর প্রকল্পের আওতায় চাল, আলু ও খাবার স্যালাইন বিতরণ করা হয়েছে।

ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে নৌকায় করে বন্যাকবলিত এলাকায় গিয়ে তা বিতরণ করা হয়। বিতরণ কালে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম রাব্বানী সরকার, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমন দাস, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সবুজ কুমার গুপ্ত  বড়ভিটা  ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মিন্টুসহ অত্র ইউনিয়নের ইউপি সদস্য গোলাম মোস্তফা, আঃ বাতেন বসুনিয়া প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

আতাউর রহমান মিন্টু জানান, তার এলাকায় ৩ হাজারের বেশি মানুষ পানিবন্দী আর বরাদ্দ পেয়েছেন মাত্র ৫০০ জনের। এটা প্রয়োজনের তুলনায় একেবারেই অপ্রতুল। তিনি এলাকায় বন্যার্তদের জন্য দ্রুত পর্যাপ্ত পরিমাণ ত্রাণ সহায়তা দেয়ার জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের নিকট দাবি জানান।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সবুজ কুমার গুপ্ত জানান, উপজেলায় বন্যা কবলিতদের সহায়তায় জি আর প্রকল্পের আওতায় ২০ টন চাল ও ১ লক্ষ টাকা বরাদ্দ পাওয়া গেছে। যা উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের ২ হাজার বন্যার্ত পরিবারের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে। আমরা বন্যা পরিস্থিতির খোঁজ খবর রাখছি। পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

পাঠকের মন্তব্য