ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি তানভিরুল ইসলামের বদলি 

ওসি তানভিরুল ইসলাম

ওসি তানভিরুল ইসলাম

ঠাকুরগাঁও সদর থানায় ওসি তানভিরুল ইসলাম ঠাকুরগাঁওয়ে দুই বছর পাঁচ মাস দায়িত্ব পালন শেষে বদলীকৃত নতু ন কর্মস্হল দিনাজপুর জেলায় যোগদানের করেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যা বলেন ওসি তানভিরুল ইসলাম। 

সম্মানিত ঠাকুরগাঁওবাসী

আমি মোঃ তানভিরুল ইসলাম, অফিসার ইনচার্জ, ঠাকুরগাঁও থানা, ঠাকুরগাঁওয়ে দুই বছর পাঁচ মাস দায়িত্ব পালন শেষে বদলীকৃত নতুন কর্মস্হল দিনাজপুর জেলায় যোগদানের জন্য প্রস্হান গ্রহণ করেছি। 

আমি প্রজাতন্ত্রের একজন কর্মচারী তথা বাংলাদেশ পুলিশের একজন সদস্য হিসেবে জনগনের জানমালের রক্ষা, এলাকার আইন-শৃঙ্খলা সমুন্নত রাখার জন্য এসেছিলাম। আমি আমার সাধ্যমত সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি। আর এই সেবার মূল্যায়ন ঠাকুরগাঁও বাসীই করবেন। তদুপরিও অজান্তে যদি কোন ত্রুটি বিচ্যুতি হয়ে থাকে সেটার জন্য দুঃখ প্রকাশ করছি। ঠাকুরগাঁও মানুষ অত্যন্ত সহজ-সরল, শান্তিপ্রিয় ও আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল এবং রাজনৈতিক নেত্রীবৃন্দের মধ্যেও পারষ্পরিক প্রগাঢ় শ্রদ্ধাবোধের কারনেই এখানকার রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, ধর্মীয়সহ সকল কার্যক্রমে একটি চমৎকার শান্তিপূর্ণ ও সুশৃঙ্খল পরিবেশ- পরিস্হিতি বিরাজমান।  

আমি গভীর শ্রদ্ধা, কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানাচ্ছি রংপুর রেঞ্জের মাননীয় ডিআইজি, পরম শ্রদ্ধেয় দেবদাস ভট্টাচার্য্য স্যার, ঠাকুরগাঁও জেলার বিজ্ঞ সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ, চীফ জুডিশিয়াল স্যার সহ সকল স্যার,  ঠাকুরগাঁও জেলার সাবেক সিনিঃ পুলিশ সুপার জনাব ফারহাত আহমদ স্যার ও পুলিশ সুপার ( অতিঃ ডিআইজি সদ্য পদোন্নতি প্রাপ্ত) মোহাঃ মনিরুজ্জামান স্যার এবং বর্তমান ঠাকুরগাঁও জেলা পুলিশের  অভিভাবক সুযোগ্য পুলিশ সুপার, জনাব মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন স্যার, অতিঃ পুলিশ সুপার প্রশাসন ঠাকুরগাঁও স্যার, অতিঃ পুলিশ সুপার ঠাকুরগাঁও (সদর সার্কেল) স্যার সহ সকল উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে আর আমার সকল সহকর্মীকে যাদের সার্বিক দিক নির্দেশনা, সাহস ও সহযোগীতায় আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রনসহ ও জনগনকে সেবা দেওয়ার এই কাজটি সম্ভব হয়েছে। সেই সাথে আরো কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি ঠাকুরগাঁওয়ের মাননীয় সংসদ সদস্য স্যার, জেলা প্রশাসক স্যার, প্রশাসক জেলা পরিষদ স্যার এবং প্রশাসনের সকল সম্মানিত কর্মকর্তা, সকল সম্মানিত জনপ্রতিনিধি, সকল সম্মানিত বীর মুক্তিযোদ্ধা, সম্মানিত সকল রাজনৈতিক নেত্রীবৃন্দ, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সম্মানিত সদস্যবৃন্দ, সম্মানিত ধর্মীয় নেত্রীবৃন্দ,  সম্মানিত ব্যবসায়ীগন সহ ঠাকুরগাঁওয়ের বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ ও সকল জন সাধারনের প্রতি যাদের সার্বিক সহযোগীতায় শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখা সম্ভব হয়েছে। 

আমি চেষ্টা করেছি ঠাকুরগাঁওয়ের মানুষের অনুভূতিকে উপলব্ধি করার এবং সেভাবেই সেবা দেয়ার। শুরুতেই যে গতিতে নাগরিক সেবার যে কাজ গুলি শুরু করেছিলাম পরবর্তী পুরো সময়টাই বৈশ্বিক মহামারি "করোনার" কারনে সে সমস্ত কাজ সেভাবে শেষ করতে না পারলেও এটাই সান্তনা, ভয়াবহ এই করোনা মহামারিতে চেষ্টা করেছি রোদ-ঝড়-বৃষ্টিতে সহকর্মীদের সাথে নিয়ে করোনার সংক্রমণের ঝুঁকি থেকে মানুষকে মুক্ত রাখতে ও জীবন বাঁচাত। 

আমি চেষ্টা করেছি মাদক, জুয়া, বাল্যবিবাহ, ভূমি দস্যুসহ বিভিন্ন অপরাধের সাথে জড়িত অপরাধীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করতে...। 

ঠাকুরগাঁও থানাধীন বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, মসজিদ, মন্দির সহ জন গুরুত্বপূর্ণ স্হানে জন সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য কমিউনিটি ও বিট পুলিশিং কার্যক্রম সহ বাংলাদেশ পুলিশে নতুন নিয়মে ভর্তির তথ্য সাধারণ জনগণ কে অবহিত করেছি। এক কথায় যেখানে সুযোগ পেয়েছি সেখানেই আপনার পুলিশ আপনার পাশে এই বিষয়ে জন সচেতনতা বৃদ্ধি করেছি।

সেই সাথে আমার সময়কার চাঞ্চল্যকর ক্লুলেস হত্যা মামলা, উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের দিক নির্দেশনা ও সহায়তা এবং সহকর্মীদের সহযোগীতায় অতি দ্রুত মামলার রহস্য উদ্ঘাটনসহ জড়িত আসমীদের গ্রেফতারের মধ্য দিয়ে ঠাকুরগাঁও বাসীকে দ্রুত আইনি সেবা দিতে চেষ্টা করেছি।

আমি মিস করবো আমার শ্রদ্ধেয় এসপি স্যার ও সার্কেল স্যারকে যারা আমাকে অত্যন্ত স্নেহ করতেন, ভালোবাসতেন, কাজের মূল্যায়নসহ বিশ্বাস করতেন। আমি স্যারদের নিকট দোয়া কামনা করছি তাদের দোয়াই আমার চলার পথের পাথেয় হয়ে থাকবে।

অপরদিকে আমার থানার ইন্সপেক্টর তদন্ত, ইন্সপেক্টর অপারেশন, সেকেন্ড অফিসার সহ সকল অফিসার ফোর্সকে তথা টিম ঠাকুরগাঁও আমি সবসময় হৃদয়ে ধারন করবো, সবার জন্য দোয়া ও আশীর্বাদ রইলো সেই সাথে আমার জন্য দোয়া কামনা করছি। সকলের কাছে দোয়া কামনা করছি।

পাঠকের মন্তব্য