ইউক্রেনে যুদ্ধ বিমান পাঠানোর বিষয়টি ভাবছে আমেরিকা

ইউক্রেনে যুদ্ধ বিমান পাঠানোর বিষয়টি বিবেচনা করছে আমেরিকা

ইউক্রেনে যুদ্ধ বিমান পাঠানোর বিষয়টি বিবেচনা করছে আমেরিকা

ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পাঁচ মাসের মাথায় এসে দেশটিতে যুদ্ধবিমান পাঠানোর বিষয় বিবেচনা করছে মার্কিন সরকার। গতকাল (শুক্রবার) ইউক্রেনের জন্য নতুন করে ২৭ কোটি ডলারের অস্ত্র সহায়তার প্যাকেজ ঘোষণার সময় একথা জানান মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের মুখপাত্র জন কিরবি।

তিনি বলেন, বিমান দেয়ার বিষয়টি এমন কোনো পরিকল্পনা নয় যা শিগগিরি বাস্তবায়ন করা হবে। বাইডেন প্রশাসন ইউক্রেনে বিমান পাঠানোর সম্ভাবনা নিয়ে প্রাথমিক পর্যায়ের চিন্তা ভাবনায় রয়েছে। আমেরিকা নতুন করে যে অস্ত্র সহায়তার প্যাকেজ ঘোষণা করেছে তার মধ্যে ১০ কোটি ডলারের ড্রোন রয়েছে। দোনবাস অঞ্চলের বাইরেও রুশ সরকার সামরিক অভিযান বিস্তৃত করতে পারে বলে মস্কো ঘোষণা করার পর নতুন অস্ত্র সহায়তা প্যাকেজ ঘোষণা করেছে আমেরিকা।

এদিকে, ব্রিটেনের বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন গতকাল আবারো ঘোষণা করেছেন যে, তার ক্ষমতা ত্যাগের পরও ব্রিটিশ সরকার রাশিয়ার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ইউক্রেনের প্রতি সমর্থন দেয়া অব্যাহত রাখবে। ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির সঙ্গে এক টেলিফোন সংলাপে তিনি এ ঘোষণা দেন। জনসন বলেন, ব্রিটেনে যেই ক্ষমতায় আসুক না কেন, ইউক্রেনের প্রতি লন্ডনের সমর্থন অটুট থাকবে।

পাঠকের মন্তব্য