মোরেলগঞ্জে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে ইলেকট্রিসিয়ানের মৃত্যু

মোরেলগঞ্জে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে ইলেকট্রিসিয়ানের মৃত্যু

মোরেলগঞ্জে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে ইলেকট্রিসিয়ানের মৃত্যু

মোরেলগঞ্জ (বাগেরহাট) প্রতিনিধি : বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে পল্লী বিদ্যুতের খুটিতে কাজ করতে উঠে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে নিহত হয়েছে এক ইলেকট্রিসিয়ান। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার দুপুর ১টার দিকে উপেজলার জিউধরা ইউনিয়নের মদরাসার বাজারে। নিহত রবিউল ইসলাম খান (২৬) ওই এলাকার বারইখালী গ্রামের শাহ-আলমের খানের ছেলে। ঘটনার সময় সে মাদ্রাসার বাজারে বিদ্যুৎ লাইনের কাজ করছিলো।

স্থানীয়রা জানায়, বুধবার দুপুর বারটার দিকে মাদ্রাসা বাজার নামক স্থানে পল্লী বিদ্যুতের দুইজন লাইনম্যান মাদ্রাসা বাজারে কজের জন্য যান। সেখানে লাইনে সমস্যা দেখা দেওয়ায় তারা স্থানীয় ইলেকট্রিসিয়ান রবিউল ইসলামকে ডেকে একটি খুটিতে উঠতে বলায় রবিউল বিদ্যুতের সমস্যা সমাধানের জন্য খুটিতে উঠলেই সে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে পুড়ে মারা যায়। এ সময় পল্লী বিদ্যুতের লাইনম্যান শ্যামল বাবু পালিয়ে যায় ও অপর লাইনম্যান নীতিষ বাবুকে স্থানীয় জনতা আটক করে রাখে। নিহত রবিউল ইসলাম পেশায় একজন ইলেকট্রিসিয়ান। তার স্ত্রী ও ২ বছরের একটি মেয়ে রয়েছে।  এ ঘটনার পরে স্থানীয় জনসাধারণ মাদ্রাসা বাজারে বিক্ষোভ মিছিল করে।

  দুর্ঘটনার খবর শুনে উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাভোকেট মো. শাহ-ই আলম বাচ্চু, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জাহাঙ্গীর আলম, পল্লী বিদ্যুৎ জেনারেল ম্যানেজার এবিএম মিজানুর রহমান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যার মো. মোজাম্মেল হক মোজাম, জেলা পরিষদ সাবেক সদস্য আফরোজা আক্তার লিনা ও পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করেন। তারা বিক্ষেভ কারীদের সান্ত করেন। 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জাহাঙ্গির আলম বলেন, নিহতের পরিবারকে জেলা প্রশাসকের পক্ষথেকে ২০ হাজার টাকা সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। ডিজিএম এবিএম মিজানুর রহমান বলেন, বিষয়টি তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। রবিউলের লাশ ময়না তদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য