বঙ্গমাতার ৯২তম জন্মবার্ষিকী পালিত হলো ৯৩তম'র ব্যানারে !  

গলাচিপা মহিলা ডিগ্রি কলেজ প্রশাসন

গলাচিপা মহিলা ডিগ্রি কলেজ প্রশাসন

সারাদেশে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিণী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এর ৮ আগস্ট ৯২ তম জন্মবার্ষিকী পালিত হয়েছে। তবে পটুয়াখালীর গলাচিপা মহিলা ডিগ্রি কলেজ প্রশাসন ব্যানারে ৯৩ তম লিখে বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকী পালন করেছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমন কর্মকান্ডে সমালোচনা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সুধীজনরা। সংশ্লিষ্ট কলেজ প্রিন্সিপাল শাহজাহান মিয়া দাবি করছেন বঙ্গমাতার ৯৩ তম জন্মবার্ষিকী হবে।

সোমবার (৮ আগস্ট) সকালে গলাচিপা মহিলা ডিগ্রি কলেজ প্রশাসন বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মোনাজাত আয়োজন করে। এ অনুষ্ঠানের ব্যানারে দেখা যায় "৮ আগস্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এর ৯৩তম জন্মবার্ষিকী" লেখা হয়েছে। শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব ৮ আগস্ট ১৯৩০ সালে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন। সেই অনুযায়ী তার বয়স ৯২ বছর ২২ দিন। তাই ব্যানারে ৯৩ তম লেখায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা। 

সভায় কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ শাহজাহান মিয়ার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. গোলাম মোস্তফা টিটো। বিশেষ অতিথি হিসাবে ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সরদার মু. শাহ আলম, গলাচিপা পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. আবিদ হাসান রুবেল, উপজেলা বনিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক বাবু তাপস কুমার দত্ত। 

এ বিষয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ সন্তোষ কুমার দে বলেন, তারা কি পত্রপত্রিকা পড়েন না, একটি কলেজের অধ্যক্ষ অথচ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এর ৯২তম জন্মবার্ষিকীর ব্যানারে ৯৩ লিখে পালন করছেন, এটা ঠিক নয়। সঠিক জন্মদিন পালন করা উচিত। 

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা টিটো বলেন, ব্যানারে ভুল লেখা ছিল তাদের কাজটা ভালো হয়নাই। আমার বক্তব্যে আমি ৯২তম বলেছি ৯৩তম বলি নাই। 

গলাচিপা মহিলা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মো. শাহজাহান মিয়া বলেন, আমি তো জানি বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এর ৯৩তম জন্মবার্ষিকী। আ.লীগ অফিস থেকে সমিত্র ব্যানার লিখে পাঠাইছে।

পাঠকের মন্তব্য