'গার্ডার দুর্ঘটনায় মৃত্যু, ১০ জনের রিমান্ড' 

'গার্ডার দুর্ঘটনায় মৃত্যু, ১০ জনের রিমান্ড' 

'গার্ডার দুর্ঘটনায় মৃত্যু, ১০ জনের রিমান্ড' 

রাজধানীর উত্তরায় বিআরটি প্রকল্পের ফ্লাইওভারের গার্ডারের চাপায় প্রাইভেটকারের পাঁচ আরোহী নিহতের মামলায় ১০ জনের বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। শুক্রবার (১৯ আগস্ট) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মাহবুব আহমেদ শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

এর আগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উত্তরা পশ্চিম থানার পরিদর্শক মোহাম্মদ ইয়াসীন গাজী ১০ আসামিকে আদালতে হাজির করেন। ক্রেনচালক আল-আমিন, রাকিব ও জুলফিকারের ১০ দিন করে এবং রুবেল, মো. আফরোজ মিয়া, মো. ইফতেখার হোসেন, আজহারুল ইসলাম মিঠু, তোফাজ্জল হোসেন ওরফে তুষার, রুহুল আমিন মৃধা ও মো. মঞ্জুরুল ইসলামের সাত দিন করে রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা।

শুনানি শেষে প্রথম তিন আসামির চার দিন করে এবং পরের সাত আসামির দুই দিন করে রিমান্ডের আদেশ দেন আদালত।
উত্তরা পশ্চিম থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন শাখার উপ-পরিদর্শক লিয়াকত আলী এসব তথ্য জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, ১৫ আগস্ট বিকেলে রাজধানীর উত্তরার জসিমউদ্দীন রোডে বাস র‍্যাপিড ট্রানজিট (বিআরটি) প্রকল্পের ফ্লাইওভারের গার্ডারের চাপায় প্রাইভেটকারে থাকা শিশুসহ ৫ যাত্রী নিহত হন। তারা হলেন—মো. রুবেল (৫০), ঝর্ণা (২৮), জান্নাত (৬), জাকিয়া (২) এবং ফাইজ। ভাগ্যক্রমে বেঁচে যান ওই গাড়িতে থাকা নববিবাহিত দম্পতি হৃদয় ও রিয়া। সেদিন রাতেই নিহত ফাহিমা আক্তার ও ঝর্না আক্তারের ভাই আফরান মণ্ডল বাবু উত্তরা পশ্চিম থানায় মামলা করেন।

পাঠকের মন্তব্য