জ্বালানি সংকটে ভিয়েনায় বিক্ষোভ; হামলার মুখে মন্ত্রী

প্রতিবাদ সমাবেশ

প্রতিবাদ সমাবেশ

ইউক্রেন যুদ্ধকে কেন্দ্র করে রাশিয়ার বিরুদ্ধে ইউরোপের পক্ষ থেকে নিষেধাজ্ঞা আরোপের কারণে যে তেল এবং গ্যাসের সংকট সৃষ্টি হয়েছে তাতে ইউরোপ জুড়ে প্রচণ্ডভাবে ক্ষোভ বাড়ছে। অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় বিক্ষোভকারীরা জ্বালানির দাম বেড়ে যাওয়ার কারণে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছেন। 

অন্যদিকে, ইতালির পররাষ্ট্রমন্ত্রী দেশটির ন্যাপল শহরে হামলার মুখে পড়েছেন।

গতকাল (শনিবার) ভিয়েনায় সরকার-বিরোধী বিক্ষোভ মিছিল হয় তাতে বিক্ষোভকারীরা ইউরোপীয় ইউনিয়ন, ন্যাটো, বিশ্বায়ন এবং চ্যান্সেলর আলেকজান্ডার শোলেনবার্গের বিরুদ্ধে স্লোগান দেন। বিক্ষোভকারীরা অস্ট্রিয়ার পতাকা বহন করেন এবং মস্কো-বিরোধী নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে ব্রাসেলসের অবস্থানের বিরুদ্ধে তারা বক্তব্য রাখেন।

এদিকে, ইতালির পররাষ্ট্রমন্ত্রী লুইগি ডি মাইয়ো হামলার শিকার হয়েছেন। ন্যাপল শহরে তাকে বিক্ষোভকারীরা বিশ্বাসঘাতক বলে অভিহিত করেন এবং শহর ছেড়ে চলে যাওয়ার জন্য স্লোগান দেন। নির্বাচনী প্রচারাভিযানে তিনি ন্যাপল শহরে গেছেন।

মন্ত্রীর নিরাপত্তারক্ষীরা বিক্ষোভকারীদেরকে দূরে রাখার চেষ্টা করেন কিন্তু বিক্ষুব্ধ প্রতিবাদকারীরা মন্ত্রী ডি মাইয়োর দিকে তেড়ে যান। পুরো ইউরোপ জুড়ে জ্বালানি সংকট তীব্র হচ্ছে এবং আসন্ন শীত মৌসুম সামনে রেখে জালানি সংকটের কারণে তেল, গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম বেড়েই চলেছে।

পাঠকের মন্তব্য