রাণীশংকৈল ডিগ্রি কলেজে ক্লাস নিলেন 'ইউএনও' স্টিভ কবির

ইউএনও সোহেল সুলতান জুলকার নাইন কবির

ইউএনও সোহেল সুলতান জুলকার নাইন কবির

ঠাকুরগাঁও রানীশংকৈল ডিগ্রি কলেজে উচ্চ মাধ্যমিক প্রথমবর্ষের ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে ইউএনও সোহেল সুলতান জুলকার নাইন কবিরের ক্লাস নেওয়ার খবর পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টম্বর) সকাল সাড়ে ১১ টার সময় কলেজের দক্ষিণ ভবনের ৪র্থ তলা হলরুমে ছাত্র-ছাত্রীদের ইংরেজি বিষয়ে ক্লাশ নেন ইউএনও।

প্রশাসনিক কাজের পাশাপাশি তিনি আজ কলেজে শিক্ষকতা করলেন প্রায় ৭৫ মিনিটেরও বেশি সময় ধরে। ক্লাসে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন অজানা বিষয়ে ক্ষনিকের শিক্ষককে কাছে পেয়ে বিভিন্ন ধরণের প্রশ্নের উত্তর দেন। ক্লাসে প্রায় ১৪০ জন ছাত্র-ছাত্রী উপস্তিত ছিল বলে জানা যায়। 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ছাত্রছাত্রীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ' আজ আমি আপনাদের আজ ক্লাসে আসলাম। এর পরও আসবো। আপনারা শ্রেনি কক্ষে উপস্থিতি বাড়াবেন। শিক্ষকদের সম্মান করবেন। জানার জন্য শিক্ষকদের বেশি বেশি প্রশ্ন করবেন। নিজেদের স্বাস্থ্যের প্রতি যত্ন নিবেন।'

জানা গেছে, এর আগেও ইউএনও প্রশাসনিক কাজের বাইরে রুটিন করে বিভিন্ন স্কুল-কলেজে প্রায় ক্লাস নিয়ে থাকেন।
ইউএনও তার অর্জিত জ্ঞান বিতরণ ছাড়াও এ যেন ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে আনন্দঘন ক্লাসের এক বিরল দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করেছেন।পাঠ্য বইয়ের বাইরেও  সচেতনতা মূলক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের সাথে কথা বলেন।

কলেজের ইংরেজি শিক্ষক ইসমাইল হোসেন জানান, 'একজন ইউএনও’র স্বেচ্ছায় পাঠদান আমাদের সবাইকে আনন্দিত করেছে। ছাত্র-ছাত্রীদের পড়ালেখায় উৎসাহিত করেছেন। আশা করছি কলেজের উপস্থিতি বাড়বে। '

এদিকে ইউএন’র কাছ থেকে পাঠ নেয়ায় কলেজের শিক্ষার্থীরা বেশ খুশি। প্রায় ৭৫ মিনিটের ক্লাসে শিক্ষার্থীরা মনোযোগ সহকারে ক্লাস করেছে। ইউএনও  সুযোগ পেলেই  আবারও ঠাকুরগাঁওয়ের বৃহৎ বে-সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রানীশংকৈল ডিগ্রি কলেজে পাঠদান করতে আসবেন বলে জানান ছাত্র-ছাত্রীরা। 

রাণীশংকৈল ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ জাকির হোসেন  বলেন, স্কুল-কলেজে গিয়ে পাঠদান করা ইউএনও মহোদয়ের এটি ব্যতিক্রমী উদ্যোগ আমাকে আরোও আপ্লূত করেছে। শিক্ষার্থীরা উনার ক্লাস পেয়ে উপকৃত হয়েছে এ আমি বিশ্বাস করি।'

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোহেল সুলতান জুলকার নাইন কবির স্টিভ 'বলেন কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের পড়ালেখায় উৎসাহিত করতেই মূলতঃ আজ আমি তাদের একটি ক্লাস নিয়েছি। তারা স্বতঃস্ফূর্তভাবে ক্লাসে উপস্থিত থেকেছে। ক্লাসে তাদের পড়ালেখা ছাড়াও বিভিন্ন বিষয়কে উৎসাহিত করার চেষ্টা করেছি।' 

পাঠকের মন্তব্য