নিন্মমানের সামগ্রী দিয়ে চলছে সোনারগাঁ পৌরসভার কাজ 

সোনারগাঁ পৌরসভায় সড়ক নির্মাণ কাজ

সোনারগাঁ পৌরসভায় সড়ক নির্মাণ কাজ

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ পৌরসভায় সড়ক নির্মাণকাজে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহারের অভিযোগ উঠেছে ঠিকাদার ও স্থানীয় প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে। দীর্ঘদিন ভোগান্তি লাঘবে সড়কটি নতুন করে নির্মাণের জন্য স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের অধীনে এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক (এডিবি) ২৪ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়।

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ পৌরসভার উদ্ধবগঞ্জ কুশিয়ারা মার্কেট এলাকা থেকে ষোলপাড়া-ভট্টপুর এলাকা পর্যন্ত সড়কটি দিয়ে প্রায় ২৫ হাজার মানুষের চলাফেরা। নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করায় কাজ বন্ধ করে দিয়েছে এলাকাবাসী।

সরেজমিন দেখা গেছে, সোনারগাঁ পৌরসভার উপ-সহকারী প্রকৌশলী রিয়াজ মোর্শেদের উপস্থিতিতে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে মাসুদ হাইটেক ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেড।

জানা যায়, স্থানীয় সরকার বিভাগের একটি প্রকল্পের মাধ্যমে সোনারগাঁ পৌরসভায় পানি সরবরাহ ও স্যানিটেশন ব্যবস্থার সম্প্রসারণ ও উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ শুরু হয় প্রায় ২৪ কোটি টাকা ব্যয়ে। প্রকল্পের আওতায় রয়েছে সুপেয় পানির ব্যবস্থা, ড্রেন।

স্থানীয় বাসিন্দা নির্মল শাহা বলেন, দীর্ঘদিন পর আমাদের এই রাস্তাটির নির্মাণকাজ শুরু হলেও সোনারগাঁ পৌরসভায় বর্তমানে মেয়র না থাকায় দায়িত্ব পালন করছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)। একজন ইউএনও দায়িত্বে থাকাকালে গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটির নির্মাণকাজে অনিয়ম ও দুর্নীতি মেনে নেওয়া যায় না।

এ বিষয়ে সোনারগাঁ পৌরসভার উপ-সহকারী প্রকৌশলী রিয়াজ মোর্শেদ বলেন, ‘ল্যাবে টেস্ট করেই এসব সামগ্রী দিয়ে আমরা কাজ করছি।‘

অভিযুক্ত মেসার্স সুদ হাইটেক ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেডের স্বত্বাধিকারী মাসুদ হাসান অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, নির্মাণসামগ্রীর গুণগত মান ঠিক রেখেই কাজ করা হচ্ছে।

সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তৌহিদ এলাহী জানান, সড়কটি নির্মাণ কাজে যদি নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহারের বিষয়টি প্রমাণিত হয় তাহলে অবশ্যই ঠিকাদারের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

পাঠকের মন্তব্য