শিক্ষার্থীদের শেখ হাসিনার মতো আদর্শবান হওয়ার আহ্বান- উপাচার্য  

উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈন

উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬ তম জন্মদিন উপলক্ষে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ হাসিনা হলে আলোচনা সভা, কেক কাটা ও ডাইনিংয়ের উদ্বোধন করা হয়েছে। বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাতে উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈন ও ট্রেজারার অধ্যাপক ড. মো. আসাদুজ্জামান ফিতা কেটে ও কুপন কিনে ডাইনিয়ের উদ্বোধন করেন।

এর আগে আলোচনা সভায় হলের আবাসিক শিক্ষার্থী সিসিলি জামানের সঞ্চালনায় প্রাধ্যক্ষ মো. শাহেদুর রহমানের সভাপতিত্বে উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈন বলেন, আজ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে তোমাদের হলের মিল উদ্বোধন করতে পারলাম। তোমাদের হলের জন্য এটি ইতিহাস হয়ে থাকবে। তোমরা এই হলটিকে এমনভাবে গুছিয়ে রাখবে যেন অন্যান্য হলগুলো তোমাদের ফলো করে। এই হলের শিক্ষার্থীরা সবাই যেন শেখ হাসিনার মতো হয়ে উঠতে পারে। নেত্রীর কোয়ালিটিগুলো ধারণা করবে এবং তোমরা একেকজন শেখ হাসিনার মতো আদর্শবান হয়ে উঠবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ট্রেজারার অধ্যাপক ড. মো. আসাদুজ্জামান, রেজিস্ট্রার আমিরুল হক চৌধুরী, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন এন এম রবিউল আউয়াল চৌধুরী, প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) কাজী ওমর সিদ্দিকী ও নৃবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মো. আইনুল হক।

এছাড়াও বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান, শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ইলিয়াস হোসেন সবুজ এবং সাধারণ সম্পাদক মো. রেজাউল ইসলাম মাজেদসহ হলের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

এসময় শিক্ষার্থীরা উপাচার্যের কাছে খাবারের ভর্তুকি, হলের ওয়াই-ফাই সংযোগ, পরিচ্ছন্নতা কর্মী স্থায়ী নিয়োগের দাবি জানান।

শিক্ষার্থীদের দাবির প্রেক্ষিতে উপাচার্য বলেন, হলের ওয়াই-ফাই দ্রুত চলে আসবে, এটার কার্যক্রম চলমান। আর ভর্তুকির জন্য ইউজিসির থেকে আলাদা বরাদ্দ আমরা পাচ্ছি না। আমরা গ্যাস ও বিদ্যুতের যে বিল হয় সেটার সাপোর্ট দিচ্ছি। আর শিক্ষার্থীদের কল্যাণে যত উদ্যোগ নেয়া প্রয়োজন আমরা সবগুলোই ধাপে ধাপে বাস্তবায়ন করছি।

পাঠকের মন্তব্য