নিউ ইয়র্কে ৪টি বাড়ি নিয়ে যা বললেন কাজী মারুফ

আলোচিত নায়ক কাজী মারুফ

আলোচিত নায়ক কাজী মারুফ

ঢাকাই সিনেমার আলোচিত নায়ক কাজী মারুফ। ২০১৫ সাল থেকে যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়া-আসার মধ্যে। ২০১৯ সালে দেশটির গ্রিন কার্ড পান তিনি। আপাতত সেখানেই স্থায়ী ‘ইতিহাস’ খ্যাত এই নায়ক। এবার জানালেন, সেখানে শুধু থাকছেনই না ইতোমধ্যে চারটি বাড়ির মালিকানাও নিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) মারুফ তার ফেসবুক পেজে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কের চারটি বাড়ির ছবি পোস্ট করে ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ চারটি বাড়ি নিউ ইয়র্কে।’ নিচে বিশেষ দ্রষ্টব্যে লেখেন, ‘দেশের টাকায় বাড়ি কিনিনি। এখানে কষ্ট করে বাড়ি কিনেছি। উল্টো দেশে রেমিট্যান্স পাঠাই। দেশে কিছুই নেই আমার যে দেশ থেকে টাকা নিয়ে আসব। দোয়া করবেন।’

এর আগের পোস্টে কিছুটা আক্ষেপের সুর বাজে মারুফের কণ্ঠে। তিনি লেখেন, ‘আমি দেশকে ভালোবেসেছি কিন্তু দেশ কি আমাকে ভালোবেসেছে? লাইভে আসব কাল (আজ)। আপনাদের বলতে, কেন আমি আমেরিকাতে? বাংলাদেশে থাকতে আমিও চাই। উড়োজাহাজ দেখলে খুব ইচ্ছে করে কবে দেশে যাব। মনে ইচ্ছে হয়, কিন্তু আছে। কিন্তুর গল্প বলতে আসব কাল ইউটিউবে।’

উল্লেখ্য, মারুফ বর্তমানে ‘গ্রিন কার্ড’ শিরোনামে একটি সিনেমা নির্মাণ করছেন। এটি তার ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি পাবে। অভিষেক সিনেমা ‘ইতিহাস’-এর মাধ্যমে জিতে নেন জাতীয় পুরষ্কার। বাবা কাজী হায়াৎ পরিচালিত এই চলচ্চিত্র মুক্তি পায় ২০০২ সালে। এরপর ‘অন্ধকার’, ‘রাস্তার ছেলে’, ‘বস্তির ছেলে কোটিপতি’, ‘দারোয়ানের ছেলে’, ‘দেহরক্ষী’, ‘ইভটিজিং’, ‘সর্বনাশা ইয়াবা’ সহ বেশকিছু জনপ্রিয় সিনেমায় অভিনয় করেন তিনি।

পাঠকের মন্তব্য