পাইকগাছায় সড়ক বিভাগের প্রকৌশলীর প্রেস ব্রিফিং

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মমতাজ বেগম

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মমতাজ বেগম

সড়কের ৩৪টি স্থানে বাঁক সরলীকরণের জমি অধিগ্রহণের সার্ভে সম্পন্ন

খুলনার ১৮ মাইল, পাইকগাছা ও কয়রা সড়কের বেতগ্রাম-তালা-পাইকগাছা-কয়রা'র ৬৫ কিঃমিঃ সড়ক উন্নয়নে ৩৩৯ কোটি ৫২ লক্ষ টাকার প্রকল্পের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলেছে। নির্মানাধীন কাজের অংশ হিসেবে সড়কের বাঁক সরলী করণ জমি অধিগ্রহণের জন্য সার্ভে সম্পন্ন হয়েছে। 

বুধবার সকালে সড়ক বিভাগ ও জেলা প্রশাসকের যৌথ প্রতিনিধি দল বাক সরলীকরণের জমি অধিকরণের জন্য সার্ভে করেন। ৩৪টি বাক সরলীকরণের জন্য জমি অধিকরণের সার্ভে করার সময় উপস্থিত ছিলেন, খুলনা সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আনিসুজ্জামান মাসুদ, অতিঃ জেলা প্রশাসক মোছাঃ শাহনাজ পারভীন, উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার ইকবাল মন্টু, ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ শিয়াবুদ্দীন ফিরোজ বুলু, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মমতাজ বেগম, উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ হাফিজুর রহমান খান, প্যানেল মেয়র শেখ মাহবুবর রহমান রঞ্জু, উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী সহ সড়ক বিভাগ ও জেলা প্রশাসকের দপ্তরের বিভিন্ন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন। 

বিকালে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মমতাজ বেগম এর সভাপতিত্বে প্রেসব্রিফিংয়ে খুলনা সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আনিসুজ্জামান মাসুদ জানান, খুলনা-৬'র সাবেক ও বর্তমান সংসদ সদস্য মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবু'র প্রচেষ্টায় ১৮ ডুমুরিয়ার ১৮ মাইল হতে তালা,পাইকগাছা ও কয়রা পর্যন্ত ৩৩৯ কোটি টাকা ব্যয়ে সড়ক প্রশস্ত করণে ৬৫ শতাংশ কাজের অগ্রগতি হয়েছে। 

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি আরোও জানান, প্রধানমন্ত্রীর উপহার স্বরুপ মেগা এ প্রকল্পের সাড়ে ৩ কিঃমিঃ সড়কের বাঁক সরলীকরণ করতে ভূমি অধিগ্রহণের জন্য ৭২ কোটি টাকা রবাদ্দ হয়েছে, যা জুনের মধ্যে এর কাজ শেষ হবে। 

এছাড়া এ প্রকল্পে ১৮ ফুট প্রশস্ত সড়কের দু'পার্শ্বে আরোও ৩ ফুট করে বৃদ্ধি করে ২৪ ফুট প্রশস্ত করা হবে। আগড়ঘাটা বাজারে কপোতাক্ষ নদী শাসনের কাজ সড়ক বিভাগের অর্থায়নে পানি উন্নয়ন বোর্ড বাস্তবায়ন করবে। যা প্রক্রিয়াধীন। রাস্তার দু'পাশে সাড়ে ৬ ফুট করে মাটির কাজ চলমান রয়েছে।

এছাড়া তালা, কপিলমুনি বাজারে সড়ক বিভাগের জায়গা কম থাকায় ড্রেন বিঘ্ন সৃষ্টি হচ্ছে। নির্বাহী প্রকৌশলী মাসুদ সর্বশেষ  নৈতিবাচক  মন্তব্য না করে এ প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন করতে জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও সাংবাদিকদের সহয়তা কামনা করেছেন।

পাঠকের মন্তব্য