‘পারমাণবিক শক্তিতে বিশ্বে সবচেয়ে ক্ষমতাবান হতে চাই’

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আধিপত্যকামী আচরণ মোকাবিলা করার প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলেছেন, তার দেশ বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী পরমাণু অস্ত্রধর দেশে পরিণত হতে চায়।

কিম শনিবার পিয়ংইয়ংয়ে এক বক্তৃতায় বলেন, বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী পরমাণু অস্ত্রধর দেশে পরিণত হওয়া উত্তর কোরিয়ার জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

উত্তর কোরিয়ার নেতা বলেন, তার দেশ আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে বিশ্ববাসীর সামনে একথা প্রমাণ করেছে যে, উত্তর কোরিয়ার কাছে পূর্ণ মাত্রার পরমাণু অস্ত্র রয়েছে এবং দেশটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে মোকাবিলা করার ক্ষমতা রাখে। কিম জং-উন আরো বলেন, উত্তর কোরিয়ার পরমাণু বিজ্ঞানীদেরকে তাদের পরমাণু অস্ত্রের শক্তি ও ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য চেষ্টা করে যেতে হবে। 

সম্প্রতি উত্তর কোরিয়া জাপান সাগর অভিমুখে তার আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ‘হুয়াসং’ নিক্ষেপ করে। জাপানি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ক্ষেপণাস্ত্রটি সেদেশের হুক্কাইদো দ্বীপ থেকে ২০০ কিলোমিটার পশ্চিমে জাপানের বিশেষায়িত অর্থনৈতিক অঞ্চলে পতিত হয়েছে। 

ওই ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় মার্কিন সেনাদের সঙ্গে জাপানের সেনাবাহিনী একটি যৌথ সামরিক মহড়া চালায়। উত্তর কোরিয়া বলছে, আমেরিকা, দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপানের সামরিক উস্কানির জবাবে নিজের সামরিক শক্তি বৃদ্ধি করে যাচ্ছে পিয়ংইয়ং।

পাঠকের মন্তব্য