পূর্ব শত্রুতার জেরে রায়পুরে দেশীয় অস্ত্রসহ মারামারি

পূর্ব শত্রুতার জেরে রায়পুরে দেশীয় অস্ত্রসহ মারামারি

পূর্ব শত্রুতার জেরে রায়পুরে দেশীয় অস্ত্রসহ মারামারি

ক্রোধ মানুষের পরম শত্রু। ক্রোধের কারনে মানুষ ভুলে যায় আপন পর, হয়ে যায় মানুষ রুপী হায়েনা। ভুলে যায় মনুষত্ব, হয়ে পড়ে আক্রমণাত্মক।ফলে হারিয়ে ফেলে হিতাহিত জ্ঞান। কোন ক্ষুদ্র কারনে মনের ক্রোধে বাঁধিয়ে ফেলে অনেক বড় দূর্ঘটনা, যার ফলাফল নিয়ে নাই কোন আগাম ধারনা।

এমনি এক ক্রোধের আক্রোশে জর্জরিত লক্ষীপুর জেলার রায়পুর উপজেলার ৪ নং সোনাপুর ইউনিয়ন। পূর্ব শত্রুতার কারণে দেশীয় অস্ত্রসস্র নিয়ে হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রায়পুর, লক্ষ্মীপুর আদালতে ১৪৩/৪৪৭/৩২৩/৩২৪/৩২৫/৩২৬/৩০৭/৩৭৯/৫০৬(২) ধারায়  মামলা রুজু করা হয়। 

মামলা সূত্রে জানা যায়, সোনাপুর ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ড চর বগা গ্রামে  মিয়াজান পাটোয়ারী বাড়িতে ১৮ নভেম্বর শুক্রবার বিকেলে বাদী রেখা বেগম (৪৫) স্বামী অলি আহমদে এর বসত ঘরে বিবাদী, পরান হাওলাদার (৩৫) সোহাগ হাওলাদার (৪০), জেসমিন আক্তার (৪৩) উভয় পিতা মৃত আলী হায়দার, মোঃ জাবেদ (২৫), রাকিব (২০)  দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা করে।

এতে বাদী ও তার ছেলে ফয়েজ আহমেদ, মেয়ে রোকসানা আক্তার মারাত্মক আঘাতপ্রাপ্ত হলে আশেপাশের লোকজন এসে সিএনজি যোগে প্রথমে রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়,পরে প্রচুর রক্ত ক্ষরনের কারণে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য রেফার করা হয়।  

এই ব্যাপারে বিবাদী পরান হাওলাদারের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এই ব্যাপারে রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শিপন বড়ুয়া বলেন উক্ত ঘটনার আদালতের আদেশ হাতে পেয়েছি এবং তদন্তের জন্য সাব ইন্সপেক্টর মোঃ ইমদাদুল হক কে দ্বায়িত্ব দিয়েছি। 

পাঠকের মন্তব্য