রাঙামাটির প্রতিপক্ষের গুলিতে ইউপিডিএফ'র শীর্ষ নেতা খুন

সুবাহু চাকমা গিরি (৫৫)

সুবাহু চাকমা গিরি (৫৫)

রাঙামাটির নানিয়ারচরে বুধবার সকালে প্রতিপক্ষের গুলিতে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউডিএফ) এক শীর্ষ নেতার মৃত্যু হয়েছে। নিহতের নাম সুবাহু চাকমা গিরি (৫৫)।

পুলিশ, ইউপিডিএফ ও স্থানীয়রা জানিয়েছে, রাঙামাটির ২ নং নানিয়ারচরে সাবেক্ষ্যাংয়ের সূর্যমণি মূর্তি এলাকায় বুধবার সকাল আনুমানিক ৮ টার সময় প্রতিপক্ষের গুলিতে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউডিএফ)'র শীর্ষ  নেতা সুবাহু চাকমা গিরি নিহত হয়। নিহত নেতা নানিয়ারচরের এগারাল্যা ছড়ার  বিরাজ মোহন চাকমার ছেলে। তিনি ওই এলাকায় সংগঠকের দায়িত্বে ছিলেন। 

ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) দাবী করেছে, তাদের প্রতিপক্ষ ইউপিডিএফ (গণতন্ত্র)'র রূপায়ন চাকমা ও শান্তিময় চাকমা'র নেতৃত্বে ৬/৭ জনের একটি ঘাতক দল ঘটনাস্থলে পৌঁছেই ব্রাশ ফায়ারে এ নেতার মৃত্যু নিশ্চিত করে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

বুধবার (৭ ডিসেম্বর) সকাল ৮টায় নানিয়ারচরে ইউপিডিএফ'র সংগঠক সুবাহু চাকমা গিরিকে গুলি করে হত্যার তীব্র নিন্দা, প্রতিবাদ ও ঘাতকদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছেন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ)'র সংগঠক শান্তিদেব চাকমা। 

সংগঠনটির প্রচার ও প্রকাশনা বিভাগ'র নিরন চাকমা প্রেরিত বিজ্ঞপ্তিতে শান্তিদেব চাকমা আরও বলেন, খুন, গুম, অপহরণ করে জনগণের ন্যায্য আন্দোলন দমন করা যাবে না। জনগণকে সাথে নিয়ে অধিকার আদায়ের এ আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

নানিয়ারচর থানার অফিসার ইনচার্জ সুজন হালদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সেনাবাহিনীর সাথে এসআই আব্দুস সাত্তার'র নেতৃত্বে পুলিশের একটি টীমকে ঘটনাস্থলে প্রেরন করা হয়েছে। টীমটি ফিরে এলে বিস্তারিত জানা যাবে যোগ করেন এ কর্মকর্তা।

পাঠকের মন্তব্য