বেরোবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি শরিফুল ও সা. সম্পাদক আসাদ

শিক্ষক সমিতির সভাপতি শরিফুল ও সা. সম্পাদক আসাদ

শিক্ষক সমিতির সভাপতি শরিফুল ও সা. সম্পাদক আসাদ

মোজাম্মেল হক হৃদয়, বেরোবি প্রতিনিধি : বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) শিক্ষক সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটি-২০২৩ নির্বাচনে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন শরিফুল ইসলাম ও আসাদুজ্জামান মন্ডল আসাদ।

এবারের নির্বাচন সর্বমোট দুই প্যানেলে হয়েছে। নীল দল সমর্থিত পনেরো জন প্রার্থী এবং  মুক্তিযুদ্ধের চেতনায়  বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের আটজন। তার মধ্যে নীল দলের সবগুলো প্রার্থীই নির্বাচিত হয়েছেন তবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের কেউই বিজয় লাভ করতে পারেনি। এ নির্বাচনের মোট ভোটার ১৮৭ জন।

এতে সভাপতি হিসেবে নীল দলের প্রার্থী রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক শরিফুল ইসলাম বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন এবং সাধারণ সম্পাদক পদে লোকপ্রশাসন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক  আসাদুজ্জামান মন্ডল আসাদ বিজয়ী হয়েছেন। এ নির্বাচনে প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজ প্যানেল থেকে সভাপতি পদে কোনো প্রতিদ্বন্দ্বি ছিলনা তবে সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সাইদুর রহমান।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা যায়, বুধবার (১৮ জানুয়ারি) সকাল দশটা থেকে বিকাল সাড়ে তিনটা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাফেটেরিয়া ভবনের দ্বিতীয়  তলায় ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে ১৬৪জন শিক্ষক ভোট দেন।নির্বাচনে কোষাধ্যক্ষ ও সাধারণ সম্পাদক পদে একটি করে এবং সদস্য পদে সর্বোচ্চ ১০টি ভোট মিলিয়ে প্রত্যেক ভোটার সর্বোচ্চ ১২টি  ভোট প্রদান করতে পেরেছেন বলে জানা যায়। রাত সাড়ে ৮টায় নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশ করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার উমর ফারুক।

এদিকে, নীল দল সমর্থিত প্যানেল থেকে সহ-সভাপতি পদে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক  ড.আবু রেজা মোঃ তৌফিকুল ইসলাম ও  যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে রসায়ন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড.আব্দুল লতিফ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন এবং কোষাধ্যক্ষ পদে বিজয় লাভ করেন একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশনস সিস্টেমস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোঃ আশানুজ্জামান

এছাড়া সদস্য পদে নির্বাচিত হয়েছেন- বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. আবু ছালেহ মোহাম্মদ ওয়াদুদুর রহমান,পরিসংখ্যান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মোঃ সিদ্দিকুর রহমান, রসায়ন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মোঃ হারুন আল রশীদ, ভূগোল ও পরিবেশবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সৈয়দ আনোয়ারুল আজিম,একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশনস সিস্টেমস এর সহযোগী অধ্যাপক ড. আপেল মাহমুদ, মার্কেটিং বিভাগের প্রভাষক রাকিবুল হাফিজ খাঁন রাকিব, রসায়ন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড.বিজন মোহন চাকি,কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মুহাঃ শামসুজ্জামান, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মোঃ কামরুজ্জামান ও ভূগোল ও পরিবেশবিজ্ঞান বিভাগের মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান।

নব-নির্বাচিত সভাপতি বলেন,'দ্বিতীয় মেয়াদে নির্বাচিত হওয়ায় আমার উপর দায়িত্ব বেড়েছে,গতবারের ইশতেহারে থাকা যেসব কাজ শেষ করতে পারিনি আশা রাখছি সেসবের পাশাপাশি নতুন উদ্যোগ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়নমূলক কাজে সহযোগিতা করতে পারব।শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের পাশে থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে চেষ্টা করব।'

প্রধান নির্বাচন কমিশনার উমর ফারুক বলেন, 'নির্বাচন সুষ্ঠু ও উৎসবমূখরভাবে সমপন্ন করতে পেরে সত্যিই আনন্দিত।আশা রাখছি শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের দাবি ও অধিকার আদায়ে শিক্ষক সমিতি ভূমিকা রাখবে।

পাঠকের মন্তব্য