ধর্ষণ অভিযোগের এক ঘন্টার মধ্যে প্রধান আসামী গ্রেফতার

সদর কোতয়ালী থানা পুলিশ

সদর কোতয়ালী থানা পুলিশ

রংপুর সদর উপজেলার সদ্যপুস্করিনী ইউনিয়নের কাগজীপাড়া গ্রামের একজন গৃহবধুকে (৫১) অপহরণ করে ধর্ষণ মামলা দেয়ার এক ঘন্টার মধ্যে প্রধান আসামীকে গ্রেফতার করেছে সদর কোতয়ালী থানা পুলিশ। 

গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে কোতয়ালী থানার ওসি তদন্ত শাহিন আলমের নেতৃত্বে একদল পুলিশ সদস্য গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ধর্ষক আশরাফ আলীকে পালিচড়া বাজার এলাকা থেকে গ্রেফতার করে। আশরাফ আলী একই ইউনিয়নের পালিচড়া হাজীপাড়া কানাই বটতলা গ্রামের মৃত ইদ্রিস আলীর পুত্র। 

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ধর্ষক আশরাফ আলী পেশায় একজন কসাই। তিনি পালিচড়া বাজারে গরুর মাংস বিক্রয় করেন। ঘটনার দিন ২৩ জানুয়ারি সন্ধ্যায়  আশরাফ আলী ওই গৃহবধুকে তার মাংসের দোকানের বকেয়া হিসাব করার জন্য পালিচড়া বাজারে ফোন দিয়ে ডেকে আনেন। এক পর্যায়ে ওই গৃহবধুকে ওয়াজ মাহফিল শুনতে যাওয়ার প্রস্তাব দেন। প্রস্তাবে রাজি না হলে তাকে জোড় পূর্বক মোটরসাইকেল তুলে নিয়ে সিটি কর্পোরেশনের পাইকার পাড়া গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে আশরাফ আলী ও জাহাঙ্গীর আলম তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন। 

সদর কোতয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সুশান্ত কুমার সরকার বলেন, আমি অভিযোগ পাওয়ার পরপরই আসামী গ্রেফতাদের নির্দেশ দিয়েছি। এরই মধ্যে প্রধান আসামী আশরাফ আলীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য আসামীকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে। গৃহবধুকে ওয়ানস্টপ ক্রাইসেস সেন্টারে পাঠানো হবে। 

পাঠকের মন্তব্য