সাজার ভয়ে ভিক্ষুক বেশে পালিয়েও শেষ রক্ষা হলো না 

উলিপুর থানা পুলিশ

উলিপুর থানা পুলিশ

কুড়িগ্রামের উলিপুরে তিন বছরের সাঁজার ভয়ে ৮ বছর ধরে ভিক্ষুক সেজে পলাতক থাকা আসামী মোঃ চান মিয়া (৫২) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। চান মিয়া উলিপুর উপজেলার হায়াৎ খাঁ এলাকার বাসিন্দা। 

সোমবার ১৮ ডিসেম্বর আটকের বিষয়টি পুলিশের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে নিশ্চিত করেছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রুহুল আমীন। এর আগে গতকাল রবিবার রংপুর নগরীর লালবাগ এলাকায় চান মিয়াকে ভিক্ষা করার সময় হাতেনাতে আটক করে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, আসামী চান মিয়ার নামে ২০০৮ সালে উলিপুর উপজেলার গোবিন্দ জিউ মন্দিরের মূর্তি ও মালামাল চুরির মামলা হয়। সেই মামলায় অভিযুক্ত চান মিয়াকে আদালত দোষি সাব্যস্থ করে ২০১৫ সালে  তিন বছর সাজা প্রদান করেন। সাজার ভয়ে ভিক্ষুক বেশে তিনি বিভিন্ন জেলায় বিভিন্নভাবে দীর্ঘ ৮ বছর পলাতক ছিলেন।  

পরবর্তীকালে দীর্ঘদিন ধরে উলিপুর থানা পুলিশের একটি দল উক্ত আসামীকে গ্রেফতারের লক্ষ্যে বিভিন্নভাবে চেষ্টা অব্যাহত রাখে। এরই ধারাবাহিকতায় উলিপুর থানা পুলিশ উক্ত আসামীর অবস্থান সনাক্ত করে গত ১৭ ডিসেম্বর ২০২৩ তারিখ রংপুর নগরীর লালবাগ এলাকায় ভিক্ষুক সেজে ভিক্ষা করার সময় গ্রেফতার করে। 

কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার  রুহুল আমীন বলেন, গ্রেফতারকৃত সাজাপ্রাপ্ত আসামী চাঁন মিয়া ৩ বছরের সাজার ভয়ে গত ৮ বছর ধরে ভিক্ষুক সেজে পলাতক ছিলো। উলিপুর থানা পুলিশের চৌকস তদন্তে উক্ত আসামীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। অপরাধী যতই চতুরতা অবলম্বন করুক না কেন তাদের আইনের আওতায় আনতে বদ্ধ পরিকর কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশ।

   


পাঠকের মন্তব্য