নিখোঁজের ২ দিন পর নিবিরের লাশ উদ্ধার

মো. নিবির (১৩) নামের এক শিশুর লাশ উদ্ধার

মো. নিবির (১৩) নামের এক শিশুর লাশ উদ্ধার

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার সালান্দর মান্দ্রাসাপাড়া এলাকায় নিখোজের দুই দিন পর নিবির নামে এক শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে ঠাকুরগাঁও সদর থানা পুলিশ। শনিবার সকালে  নিখোঁজের দুই দিন পর বসতঘরের পেছন থেকে মো. নিবির (১৩) নামের এক শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত নিবির সালান্দর মাদ্রাসাপাড়া এলাকার ওমান প্রবাসী আব্দুস সালাম বাবুলের ছেলে। সে স্থানীয় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল।  লাশ উদ্ধারের বিষয় নিশ্চিত করেন ঠাকুরগাঁও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ বি এম ফিরোজ ওয়াহিদ। 

পুলিশ ও নিহত স্বজনেরা জানান, গত বৃহস্পতিবার দুপুরে খাবার খেয়ে বাড়ির পাশে বন্ধুদের সঙ্গে খেলতে যায় নিবির। এরপর থেকে সে আর বাড়ি ফিরে না আসায় বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করেও সন্ধান মেলেনি তার। 

আজ ভোরে নিজেদের বাড়ির পেছন থেকে নিবিরের মরদেহ দেখতে পান তার মা শিল্পী খাতুন। এ সময় পুলিশে খবর দিলে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন সদর থানা পুলিশ, পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) ও গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) বিভিন্ন কর্মকর্তা। 

নিহতের মা শিল্পী খাতুন বলেন, দুই দিন ধরে কত জায়গায় খোঁজাখুঁজি করেও নিবিরকে পাইনি। অথচ আজ তার লাশ বাড়ির পেছনে পাওয়া গেল। আমার সন্তানকে কেউ শত্রুতাবশত অপহরণ করে হত্যা করেছে। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।

ওসি ফিরোজ ওয়াহিদ বলেন, শিশুটির মরদেহ ফুলে গেছে। হত্যাকাণ্ডটি আজকে সংঘটিত হয়নি। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন আসার পরে সঠিক তথ্য জানা যাবে। এ বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়াধীন। কারা, কী কারণে এ ঘটনা ঘটিয়েছে, বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে পুলিশ। এর আগে শিশুটি নিখোঁজ হওয়ার পর তার মা থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

   


পাঠকের মন্তব্য