কুমারখালীতে ভাবীর হাতে দেবরের পুরুষাঙ্গ কাটার অভিযোগ 

কুমারখালী উপজেল জগনাথপুর ইউনিয়ন

কুমারখালী উপজেল জগনাথপুর ইউনিয়ন

কুষ্টিয়া কুমারখালী উপজেল জগনাথপুর ইউনিয়নের হোগলা গ্রামের মোঃ হেলাল শেখ (৪৫) মৃত পিতা আব্দুল গফুর, বিষয়টি হেলাল এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন আমার ভাবি মোছাঃ রোজিনা খাতুন (৪৫) আমার ভাই মোঃ জালাল শেখ (৫০) দীর্ঘদিন যাবত ধরে আমার বসতবাড়িতে যাওয়ার আসার পথ বিরোধ ও শত্রুতা চালিয়ে যাচ্ছিলেন।  

আমার নিজ বাড়িতে চলার পথে আমার দুই টি ব্যারাক স্কুল রয়েছে পদ ব্যবহার করায় শত্রুমুলক আমার কৈ পথে  ধানের খড় ও কাটা দিয়ে পথ বন্ধ করে দেয়। ওই পথ বন্ধ করার পরেই ২৪/০৫/২০২৪ তারিখে বিকাল আনুমানিক সন্ধ্যা ৬.০০ ঘটিকার সময়ের আমি বিষয়টি আমার বড় ভাবির রোজিনার কাছে জানতে চাইলে আমার এই পথটি বন্ধ করে রাখছেন কেন, পরবর্তীতে কথা  কাটাকাটি একপর্যায়ে, আমার বড় ভাই জালাল শেখ মাঠ থেকে বাড়িতে ফেরার পথে আমার কথা কাটাকাটি শুনিয়া এক পর্যায়ে তার সাথেও কথা কাটাকাটির ঘটনা স্থলে হাতে থাকা কাচি ফেলে আমাকে ধাক্কা দিয়া মাটিতে ফেলে দেয়, আমি চিৎকার করে চেচামেচি করি আমার বড় ভাবি পাশে থাকা কাচি দিয়ে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে আমার পুরুষাঙ্গে পোচ মারিয়া গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে। হেলালের স্ত্রী বলেন বসতবাড়ির যাতায়াতের পথে মাঝেমধ্যে ঝরগা হয় কিন্তু আজ তারা আমার স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দিয়েছে। পুরুষাঙ্গের  ১০ টি সেলাই লেগেছে। তার অবস্থা অনেক ভয়াবহ জনক মনে হচ্ছে।

কুমারখালী থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আকিবুল ইসলাম আকিব জানান, এই বিষয়টি শুনেছি। এখন পর্যন্ত লিখিত অভিযোগ পাইনি অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

   


পাঠকের মন্তব্য