যুদ্ধ পরিস্থিতি : মদি'র বাসভবনে উচ্চপর্যায়ের বৈঠক

ভারতে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক ডাকা হয়েছে। ওই বৈঠক ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে। ওই বৈঠকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী রাজনাথ সিং ছাড়াও নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল সহ উচ্চ পদস্থ আধিকারিকরা রয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। এছাড়াও বিদেশ মন্ত্রী সুষমা স্বরাজ চিন সফরে রয়েছেন।

ইতিমধ্যেই শ্রীনগর লেহ, জম্মু, পাঠানকোট অমৃতসর সহ ৬ টি বিমান বন্দর থেকে সমস্ত রকম যাত্রীবাহী বিমান উঠানামা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে পাকিস্থানেও দুটি বিমানবন্দর থেকে যাত্রীবাহী বিমান ওঠা নামা বন্ধ করা হয়েছে।

পুলওয়ামা হামলার বদলায় মঙ্গলবার ভোরে সার্জিকাল স্ট্রাইক করে ভারতীয় বায়ুসেনা। পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ঢুকে একের পর এক জইশের জঙ্গি ঘাঁটি ধ্বংস করে আসে ভারতের বায়ুসেনা। মঙ্গলবার ভোর রাতে ভারতীয় বায়ুসেনার হিন্ডন এয়ারবেস থেকে আকাশে ওড়ে ১২টি মিরাজ ২০০০ জঙ্গিবিমান। পাক অধিকৃত কাশ্মীরের ৩টি জায়গায় প্রায় ১০০০ কেজি বোমা ফেলে তারা। ধুলোয় মিশিয়ে দেওয়া হয় বালাকোট, মুজফ্ফরাবাদ ও চকৌটির জঙ্গি শিবিরগুলি। ৩.৪৫ মিনিট থেকে ২০ মিনিটের মধ্যে গোটা অপারেশন শেষ করে ভারতে ফিরে আসে যুদ্ধবিমানগুলি। এই হামলায় বালাকোটে জইশ-ই-মহম্মদের ঘাঁটি সহ বহু জঙ্গিশিবির গুঁড়িয়ে দিয়েছে বায়ুসেনা। কমপক্ষে ৩০০ জইশ ই মহম্মদ জঙ্গি সহ মাসুদ ঘনিষ্ঠ বেশ কয়েক জন কম্যান্ডারের মৃত্যু হয়।

পাক মাটিতে গিয়ে ভারতীয় বায়ুসেনার হামলার পর রাত থেকেই দফায় দফায় সীমান্তরেখা লঙ্ঘন করতে শুরু করেছে পাকিস্তান। জম্মু, রাজৌরি ও পুঞ্চ সেক্টরে সংঘর্ষবিরতি লঙ্ঘন করে পাক সেনা। মঙ্গলবার রাতভর নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর গোলগুলি চলে প্রায় ১২ থেকে ১৫ টি জায়গায়। অন্যদিকে, সোপিয়ানে নিরাপত্তাবাহিনীর সঙ্গে শুরু হয় জঙ্গিদের গুলির লড়াই। তল্লাশি চালানোর সময় মেমানদারের একটি বাড়িতে ৩ সন্ত্রাসবাদীকে আটক করে বাহিনী। এরপর এনকাউন্টারে ২ জইশ জঙ্গি খতম হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য