কেন ভারতীয় পাইলট-কে ফেরত দিতে বাধ্য পাকিস্তান

উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে ফেরত দেওয়া ছাড়া আর কোনও পথ খোলা ছিল না পাকিস্তানের কাছে৷ জেনেভা কনভেনশন চুক্তি অনুযায়ী আরও আগেই তাঁকে ছেড়ে দেওয়া উচিত ছিল৷ এমনটাই জানান, প্রাক্তন সেনাকর্তা ব্রিগেডিয়ার দেবাশীষ দাস ৷

তিনি আরও জানান, উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে ফেরত দিচ্ছে পাকিস্তান৷ তার মানে এটা নয় যে ইমরান খান বা তার সরকার খুব বড় কাজ করছে বা ভারতকে দয়া করছেন৷ জেনেভা কনভেনশন চুক্তি অনুযায়ী অভিনন্দনকে ফেরত পাঠাচ্ছে পাকিস্তান৷ ১৯৭১ সালে ভারতও ওই চুক্তি অনুযায়ী ৯৩ হাজার পাক সেনাকে ফেরত পাঠিয়েছিল৷ বিশ্বের প্রতিটি দেশের যাতে শান্তি বজায় খাতে তার জন্যই জেনেভা চুক্তি৷ সেই চুক্তিতে তখন পাকিস্তানও সই করেছিল৷ চুক্তি অনুযায়ী অন্য দেশের আটক, আহত ও অসুস্থ সেনাদের রক্ষা করতে হবে৷ এবং বিনা শর্তে ফেরত দিতে হবে৷ পাকিস্তান এখন তা না মানলে এটা হত চুক্তিভঙ্গের সামিল ৷

সে ক্ষেত্রে, জেনেভা চুক্তিভঙ্গের জন্য পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারত তো প্রত্যাঘাত করতই৷ রাষ্ট্র সঙ্ঘের অন্যান্য দেশও পাকিস্তানের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক,সামরিক পদক্ষেপ নিতে পারতো৷ সম্ভবত সেই আশঙ্কাতেই ইমরান খান ঘোষণা করতে বাধ্য হয়েছেন যে, অভিনন্দনকে ফেরত পাঠানো হবে৷ তবে এই ব্যাপারে ভারত কোনও ভাবেই পাকিস্তানের সঙ্গে আপোষ করেনি৷ উলটে ভারত হুশিয়ারি দিয়ে বলেছিল, পাইলটকে ফেরত না দিলে অন্য ব্যবস্থা নেওয়া হবে ৷

পাকিস্তান এখন পাইলটকে ফেরত পাঠিয়ে আন্তর্জাতিক স্তরে বোঝাতে চাইবে, তারা শান্তির বার্তা দিল৷ আসলে তা নয়৷ ব্রিগেডিয়ার দেবাশীষ দাসের মতে, পাকিস্তানকে যদি শান্তির বার্তা দিতেই হয়,তাহলে মাসুদ আজাহারকে ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হউক ৷

পাঠকের মন্তব্য