ভারত-পাকিস্তান অস্থিরতায় মুখ খুললেন মালালা

১৪ ই ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামা ঘটনার পর ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে দ্বন্দ্ব শুরু হয়েছে। পুলওয়ামা কাণ্ডে ভারত কড়া প্রতিশোধ নিয়েছে। মঙ্গলবার রাতে অভিযান চালিয়ে গুঁড়িয়ে দিয়েছে বালাকোটের জইশ জঙ্গি প্রশিক্ষণ শিবির।

এই নিয়ে বতর্ক শুরু হয়েছে দুই দেশে। সবপক্ষই নিজেদের দাবিতে যুক্তি এবং পালটা যুক্তি দেখাচ্ছে। সারা উপমহাদেশ যখন এই হানাহানির ইতি চাইছে, তখন একজন পাকিস্তানি হয়ে শান্তি বার্তা দিলেন পাকিস্তানি সমর্থক ও নোবেল পুরস্কার জয়ী মালালা ইউসুফজাই।

তিনি বোলেণ, দুই দেশের প্রধান মন্ত্রীকেই আহ্বান জানিয়েছেন করমর্দনের মাধ্যমে ' সঠিক নেতৃত্ব ' দেখিয়ে এই যুদ্ধের অবসান জানাতে। একটি টুইটার পোষ্টে মালালা বলেছেন, ' বদলা এবং প্রতিশোধ কখনই সঠিক পদক্ষেপ নয় এবং পৃথিবী আর যুদ্ধ চায়না।'

একজন নোবেল জয়ী হিসেবে,রাষ্ট্রপুঞ্জের শান্তিদূত হিসেবে, পাকিস্তানের একজন নাগরিক ও পড়ুয়া হিসেবে আমি ভারত - পাক উত্তেজনার বিরুদ্ধে সচেতন। দুই সীমান্তের মানুষের জীবনের প্রতিও দায়বদ্ধ। লক্ষাধিক মানুষ এই যুদ্ধের কারণে দুর্ভোগে পড়েছেন। যুদ্ধের ভয়াবহতা সম্পর্কে প্রত্যেকেই সচেতন। যুদ্ধের প্রতিক্রিয়া যে সবসময় প্রতিশোধ, তা মোটেই ঠিক নয়। একবার শুরু হয় কিন্তুযুদ্ধের শেষ হয় খুব কষ্টের।'

প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে উদ্দেশ্য করে মালালা ইউসুফজাই বলেছেন, 'আমি পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে এই কঠিন সময়ে সঠিক নেতৃত্ব দান করার অনুরোধ জানিয়েছি। দুজনে মুখোমুখি বসে কথা বলুন, হাত মেলান, এবং এই চলতি দ্বন্দ্বের অবসান করুন। কাশ্মীরের সমস্যার সমাধানও সামনাসামনি বসেই করুন।আমি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এ বিষয়ে বলেছি দুই দেশের মধ্যে কথা বলাতে এবং দুই দেশের জনজীবন ধ্বংস হওয়া থেকে মুক্তি দিতে।'

তিনি এও বলেন, 'দুই দেশের মানুষই জানেন সত্যিকারের শত্রু হোলো সন্ত্রাসবাদ, দারিদ্র, অশিক্ষা, অস্বাস্থ্য - দুই দেশের মধ্যে লড়া নয়।' বৃহস্পতিবার অভিনন্দনকে ভারতে ফিরিয়ে দেওয়ার বার্তাও দিয়েছে পাক সরকার।

পাঠকের মন্তব্য