বাজেটে রোহিঙ্গাদের জন্য আলাদা কোনো বরাদ্দ নেই 

বাজেটে রোহিঙ্গাদের জন্য আলাদা কোনো বরাদ্দ নেই 

বাজেটে রোহিঙ্গাদের জন্য আলাদা কোনো বরাদ্দ নেই 

২০১৯-২০২০ অর্থ বছরের ঘোষিত বাজেটে রোহিঙ্গাদের জন্য আলাদা কোনো বরাদ্দ রাখা হয়নি। তবে গত ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরের বাজেটে ব্যয়ের নতুন খাত ধরা হয়েছিল রোহিঙ্গা পুনর্বাসন। এতে ৪০০ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখেন তৎকালীন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

বৃহস্পতিবার অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল জাতীয় সংসদে ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকার বাজেট পেশ করেন।

বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘নির্যাতন, নিপীড়ন ও জাতিগত নিধন থেকে সর্বস্ব হারিয়ে প্রাণ বাঁচাতে মিয়ানমার হতে বলপূর্বক বাস্তচ্যুত রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি থেকে বাংলাদেশে আশ্রয় দেওয়া হয়। বাস্তচ্যুত ১১ লক্ষাধিক রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর জন্য বাংলাদেশ খাদ্য, আবাসন, স্বাস্থ্য ও অন্যান্য জরুরি সেবাসহ আনুষঙ্গিক ভৌত সেবা সুবিধা প্রদান করছে।’

রোঙ্গিাদের ফেরত পাঠানোর আলোচনা অব্যাহত আছে জানিয়ে আ হ ম মোস্তফা কামাল বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের নিজ বাসভূমে নিরাপদ, সম্মানজনক ও স্থায়ীভাবে ফেরত পাঠানোর জন্য প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় দ্বিপাক্ষিক আলোচনা অব্যাহত আছে।’

অসুস্থতা নিয়েই আজ জাতীয় সংসদে প্রবেশ করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। তিনি বাজেট উত্থাপন শুরু করার কিছুক্ষণ পর অসুস্থতার কারণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বাজেট উত্থাপনের অনুরোধ জানান। পরে স্পিকারের অনুমতি নিয়ে বাজেট উত্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী। এবারের বাজেট দেশের ৪৮তম, আওয়ামী লীগ সরকারের ২০তম এবং অর্থমন্ত্রী হিসেবে আ হ ম মুস্তফা কামালের প্রথম বাজেট।

পাঠকের মন্তব্য