উপেন্দ্র নাথ বাবু এর কবিতা : 'শুন্য স্বপ্নে' 

উপেন্দ্র নাথ বাবু এর কবিতা : 'শুন্য স্বপ্নে' 

উপেন্দ্র নাথ বাবু এর কবিতা : 'শুন্য স্বপ্নে' 

শুন্য স্বপ্নে

উপেন্দ্র নাথ বাবু

স্বপ্নটাকে হারিয়ে ফেলেছি চাহিদার ভীড়ে
এলোমেলো চাহিদা গুলো বড়ো নিষ্ঠুর।
নির্মম হাওয়ার বেগে অনেক দূরে নিয়ে যায় অজান্তে।

অনেক দূরে চলে এসেছি, 
ফুটপাতে মানুষ ঘুমায় কত শান্তিতে
গরিবের নেশায় অনিবরত বিরতিহীন ভাবে হেটে চলি; 
পূর্ণ প্রহর গোনা রাত্রির শূন্য পথের শেষ যাত্রী মনে হয় আমি।

নির্জনতায় ছায়ার ভীড় নিঃশব্দ পায়ে এগিয়ে চলেছে সাথে একাকিত্বের
শূন্যতায় উজাড় হয়ে যাবো।

উঁচু নীচু পথে জীবনের কত
হোঁচট নিস্তব্ধতায় রক্ত ঝড়িয়ে; 
মিশে গেছে ধুলোয়।
নিরাশ্রয় হয়ে একাকিত্বের শূন্যেতায়
জীবনের সত্তা নিয়ে কি হবে।

স্বপ্নের অনুভূতি গুলো ভাষা হীন হয়েছে।
দিশাহীন উপেক্ষীত মনে হয় সব।
বাস্তবতার অন্ধকার গুহায় ঝিমুতে ঝিমুতে ঘুম-পাগল স্মৃতিগুলো;  
একসময় চিরদিনের জন্য ঘুমপুরীর বাসিন্দা হয়ে যায়।

একাকী রই আমি শুন্য স্বপ্নে।

বলদিয়া
২৩/০১/২০১৯

পাঠকের মন্তব্য