সি আর দত্তের মৃত্যুতে বেরোবি উপাচার্যের শোক

সি আর দত্তের মৃত্যুতে বেরোবি উপাচার্যের শোক

সি আর দত্তের মৃত্যুতে বেরোবি উপাচার্যের শোক

আব্দুল্লাহ আল তোফায়েল, বেরোবি প্রতিনিধি : মুক্তিযুদ্ধকালীন ৪ নম্বর সেক্টরের কমান্ডার মেজর জেনারেল (অব.) চিত্ত রঞ্জন দত্ত (সি আর দত্ত) বীর উত্তম আর নেই। বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৯৩ বছর।

তার মৃত্যুতে গভীর শোক ও দু:খ প্রকাশ করেছেন রংপুরের, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ।এক শোক বার্তায় তিনি বলেন মহান মুক্তিযুদ্ধে  ৪ নম্বর সেক্টরের কমান্ডার হিসাবে সি আর দত্তের বীরত্বপূর্ণ ভূমিকা বাংলাদেশের ইতিহাসে চির অমলিন।জাতি মহান মুক্তিযুদ্ধের এই বীরকে হারিয়ে শোকাভিভূত।তিনি আরও বলেন আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে তার অসাধারণ অবধানের কথা বাঙালি জাতি চিরকাল গভীর শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ রাখবে।

সি আর দত্তের জন্ম ১৯২৭ সালের ১ জানুয়ারি আসামের শিলংয়ে। তার পৈতৃক বাড়ি হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার মিরাশি গ্রামে।

হবিগঞ্জ গভর্নমেন্ট হাই স্কুল থেকে ১৯৪৪ সালে তিনি মাধ্যমিক পাশ করেন। কলকাতার আশুতোষ কলেজে বিজ্ঞান শাখায় ভর্তি হয়ে ছাত্রাবাসে থাকা শুরু করেন তিনি৷ পরবর্তীতে খুলনার দৌলতপুর কলেজের বিজ্ঞান শাখায় ভর্তি হন, এখান থেকেই বিএসসি পাশ করেন৷

সি আর দত্ত ১৯৫১ সালে পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে যোগ দেন৷ কিছুদিন পর 'সেকেন্ড লেফটেন্যান্ট' পদে কমিশন পান। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় ৪নং সেক্টরের সেক্টর কমান্ডারের দায়িত্ব পালন করেছেন। ১৯৭৪ সালে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মেজর জেনারেল পদ থেকে অবসরে যান। বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড (অধুনালুপ্ত বাংলাদেশ রাইফেলস)-র প্রতিষ্ঠাতা মহাপরিচালক, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশনের সাবেক চেয়ারম্যান ছিলেন তিনি।

সি আর দত্ত সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতির দায়িত্ব পালন করছিলেন। তিনি হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি।

পাঠকের মন্তব্য