সন্ত্রাস দমনে আবারও বড়সড় সাফল্য পেলো বাংলাদেশ

সন্ত্রাস দমনে আবারও বড়সড় সাফল্য পেলো বাংলাদেশ

সন্ত্রাস দমনে আবারও বড়সড় সাফল্য পেলো বাংলাদেশ

সন্ত্রাস দমনে আবারও বড়সড় সাফল্য পেলো বাংলাদেশ। এবার ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে কুখ্যাত জেহাদি সংগঠন 'আনসার আল ইসলাম' এর চার সন্ত্রাসবাদী। 

বাংলাদেশ পুলিশ সুত্রে খবর, সোমবার গোপন খবরের ভিক্তিতে একাধিক জায়গায় অভিযান পরিচালনা করে বাংলাদেশ এলিট বাহিনী র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। গ্রেপ্তারকৃত জঙ্গিদের নাম- মুহাম্মদ কলিমউল্লাহ (৩৭), মুহাম্মদ তাসকিন হাসান ওরফে আনন্দ (১৯), মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর মিয়া ওরফে জহিরুল ইসলাম ওরফে মাসুদ (২৩), মুহাম্মদ আলী রাসেল (৩৪)। 

র‍্যাব-৪-এর সহকারী পুলিশ সুপার মহম্মদ জিয়াউর রহমান জানিয়েছেন, ধৃতদের কাছ থেকে জেহাদি পুস্তিকা ও লিফলেটও উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, গত ১২ ফেব্রুয়ারি র‌্যাব-৪ ‘আনসার আল ইসলাম’এর ৪ সদস্যকে গ্রেপ্তার করে। পরে তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সাভার, ভাসানটেক, তেজগাঁও ও যাত্রাবাড়ী এলাকায় অভিযান চালানো হয়।

উল্লেখ্য, আল কায়েদাপন্থী জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলাম বাংলাদেশে বিজ্ঞানমনস্ক লেখক অভিজিৎ রায়-সহ ৯ জনকে হত্যা করেছে। কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করে শুদ্ধস্বরের কর্ণধার আহমেদ রশিদ টুটুলকে। সবশেষ ২০১৬ সালের ২৫ এপ্রিল তারা ইউএসএআইডির কর্মকর্তা জুলহাজ মান্নান ও তাঁর বন্ধু মাহবুব রাব্বী তনয়কে খুন করে। নাজিমউদ্দিন সামাদ খুন হন ২০১৬ সালের ৬ এপ্রিল। সব মিলিয়ে বাংলাদেশে মুক্তমনাদের মনে ত্রাস সৃষ্টি করেছে আনসার। তবে শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর জঙ্গি সংগঠনগুলির বিরুদ্ধে লাগাতার অভিযান চালাচ্ছে বাংলাদেশের নিরাপত্তা বাহিনী। যার ফলে অনেকটাই কোণঠাসা সন্ত্রাসবাদী সংগঠনগুলি। কিন্তু তবুও একেবারে শক্তিহীন হয়ে পড়েনি তারা। দেশকে রক্তাক্ত করতে ক্রমাগত পরিকল্পনা করে যাচ্ছে জেহাদি সংগঠনগুলি।

পাঠকের মন্তব্য