সাকিব কালীপূজায় যাবে না মসজিদে; তাঁর ব্যক্তিগত ব্যাপার

সাকিব কালীপূজায় যাবে না মসজিদে; এটা তাঁর ব্যক্তিগত ব্যাপার

সাকিব কালীপূজায় যাবে না মসজিদে; এটা তাঁর ব্যক্তিগত ব্যাপার

সাকিব আল হাসানের মতো বিশ্বমানের ক্রিকেটার কালীপূজায় যাবে নাকি মসজিদে যাবেন, সেটা সম্পূর্ণ তাঁর ব্যক্তিগত ব্যাপার। এর জন্য কেউ তাঁকে হত্যার হুমকি দিতে পারে না। 

মঙ্গলবার একথা স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছেন বাংলাদেশের হাইকোর্ট। 

গত বছর কালীপূজোর ঠিক আগে ১২ নভেম্বর বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে গাড়ীতে করে ভারতে প্রবেশ করেন সাকিব আল হাসান। তারপর সন্ধ্যায় কাঁকুড়গাছিতে পরেশ পালের কালীপূজোয় উদ্বোধনে যান বলে সামাজিক গণমাধ্যমে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। তারপর ক্ষোভ প্রকাশে ফুঁসতে থাকে দেশের আলেম সমাজ। ফেসবুক লাইভে দা উঁচিয়ে সাকিবকে গলা কেটে হত্যার হুমকি দেয় সিলেটের মহসিন তালিকদার। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয় সেই ভিডিও। তারপরই সিলেটের মহসিন তালিকদারকে গ্রেপতার করা হয়। 

মঙ্গলবার সেই মহসিনের জামিন আবেদনের ভার্চুয়াল গুনানি হয় বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি মোঃ বদ্রুজ্জামান এর বেঞ্চে। শুনাতিতে আদালতের পক্ষে জানানো হয়, এক বিশ্বমানের ক্রিকেটার কালীপূজায় যাবে নাকি মসজিদে যাবেন, সেটা সম্পূর্ণ তাঁর ব্যক্তিগত ব্যাপার। এর জন্য কেউ তাঁকে হত্যার হুমকি দিতে পারে না। 

উল্লেখ্য, ঘটনার পরই পরিস্থিতির অবনতি ঘটলে একটি পর্যায় কালীপূজায় উপস্থিতির জন্য ক্ষমা চেয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। তাঁর সেই অবস্থানের বিরোধিতা করেছিলেন নারীবাদী লেখক তসলিমা নাসরিন। লেখক তসলিমা নাসরিন সেই সময় ফেসবুক স্ট্যাটাসে যা লিখেছিলেন যা   তসলিমা নাসরিন সেই সময়ের ফেসবুক স্ট্যাটাস

পাঠকের মন্তব্য