হেফাজতের শাস্তি দাবি করে কুবি শিক্ষক সমিতির বিবৃতি

হেফাজতের শাস্তি দাবি করে কুবি শিক্ষক সমিতির বিবৃতি

হেফাজতের শাস্তি দাবি করে কুবি শিক্ষক সমিতির বিবৃতি

দেশব্যাপী হেফাজতে ইসলামের মৌলবাদী তাণ্ডব, নৈরাজ্য, অগ্নিসংযোগ, রাষ্ট্ৰীয় সম্পদের ক্ষতি, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর বিরােধিতা ও বঙ্গবন্ধুকে অবমাননা-অসম্মানের প্রতিবাদে এবং ষড়যন্ত্রকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে বিবৃতি দিয়েছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি। 

বৃহস্পতিবার (০১ এপ্রিল) শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত এ বিবৃতি দেয়া হয়। 

বিবৃতিতে বলা হয়, বাঙ্গালী জাতির পিতা ও স্বাধীনতার মহান স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উদযাপন করার পরপরই ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন করছে, ঠিক এমনই মাহেন্দ্রক্ষণে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য বিএনপি-জামায়াত মদদপুষ্ট হেফাজতে ইসলাম আবারও দেশ বিরোধী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে এবং ধ্বংসাত্মক কর্মকান্ড চালিয়েছে। তারা সরকারি স্থাপনা ও গণপরিবহণ ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করেছে, বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ও প্রতিকৃতিতে ভাংচুর করেছে, সাধারণ মানুষের উপর হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছে, জ্বালাও পোড়াও করে সাধারণ জনমনে আতংক সৃষ্টি করেছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি বিশ্বাস করে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে যারা জাতির পিতার ভাস্কর্যে আঘাত করে তারা স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব, উন্নয়ন ও অগ্রগতিকে বিশ্বাস করেনা।  

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি স্বাধীন বাংলাদেশে স্বাধীনতা বিরোধী এ প্রতিক্রিয়াশী জনগোষ্ঠী এসকল কার্যক্রমের তীব্র নিন্দা, প্রতিবাদ ও ধিক্কার জানাই। আমরা সরকারের নিকট অবিলম্বে ষড়যন্ত্রকারীদের এবং তাদের মদদ দাতাদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি।

পাঠকের মন্তব্য