ইন্দোনেশিয়ার নিখোঁজ সাবমেরিন উদ্ধার; বেঁচে নেই কেউ 

ইন্দোনেশিয়ার সাবমেরিনের ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার; বেঁচে নেই কেউ 

ইন্দোনেশিয়ার সাবমেরিনের ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার; বেঁচে নেই কেউ 

ইন্দোনেশিয়ার নিখোঁজ সাবিমেরিনের ৫৩ জন নাবিকের সবাই মারা গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ইন্দোনেশিয়ার একজন সামরিক মুখপাত্র জানিয়েছেন, নাবিকদের প্রায় ৭২ ঘণ্টা পর্যন্ত টিকে থাকার মতো পর্যাপ্ত অক্সিজেন ছিল সাবমেরিনটিতে। স্থানীয় সময় গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাত তিনটা পর্যন্ত অক্সিজেনের ঘাটতি হওয়ার কথা ছিল না তাদের। কিন্তু এ সময়সীমা পার হয়ে গেছে।

স্বাভাবিক নিয়মে এখন সাবমেরিনে বেঁচে থাকার মতো কোনো অক্সিজেন নেই। তিন দিন আগে কেআরআই নানগালা-৪০২ নামের সাবমেরিনটি ৫৩ জন নাবিকসহ নিখোঁজ হয়। অক্সিজেনের মজুত ফুরিয়ে যাওয়ায় নাবিকদের জীবিত উদ্ধারের আশা নেই বললেই চলে।

এদিকে, ইন্দোনেশিয়ার নৌবাহিনীর প্রধান ইয়ুদো মারগোনো আজ (শনিবার) জানিয়েছেন, সাবমেরিনের ধ্বংসাবশেষের কয়েকটি টুকরা উদ্ধার হয়েছে। আজ ছয়টি টুকরা সাংবাদিকদের সামনে হাজির করা হয়।

সাবমেরিনের এসব ধ্বংসাবশেষের মধ্যে ছিল লুব্রিকেন্টের একটি বোতল ও টর্পেডোর সুরক্ষার একটি যন্ত্র। সাবমেরিনের সর্বশেষ অবস্থানের কাছেই এসব জিনিস পাওয়া গেছে। এগুলো সাবমেরিনের অংশ বলেই ধারণা করা হচ্ছে। চাপ না থাকলে সাবমেরিন থেকে এসব জিনিস কখনো বের হয়ে আসার কথা না বলে সামরিক কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

নৌবাহিনীর প্রধান মারগোনো আরও বলেন,নির্ভরযোগ্য তথ্যপ্রমাণ পাওয়ায় নিখোঁজ সাবমেরিনটি ডুবে গিয়েছে বলেই নিশ্চিত হওয়া গেছে। ইন্দোনেশিয়ার পাঁচটি সাবমেরিন রয়েছে। সেগুলোর একটি হচ্ছে ডুবে যাওয়া কেআরআই নানগালা-৪০২। 

পাঠকের মন্তব্য