খাইরুল ভাই ছিলেন একজন 'বীর বাহাদুর' : এমপি তৌফিক

সংসদ সদস্য প্রকৌশলী রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক

সংসদ সদস্য প্রকৌশলী রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক

আশরাফুল ইসলাম তুষার : অষ্টগ্রাম উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের  সাবেক সাধারন সম্পাদক খাইরুল আলম খন্দকার ইন্তেকাল করেছেন। (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নাইলাইহি রাজিউন)।

সোমবার সন্ধ্যা ছয়টায় অষ্টগ্রাম উপজেলার কাস্তল ইউনিয়নের বাহাদুরপুর গ্রামের নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেন তিনি। তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য প্রকৌশলী রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক।

সোমবার রাতে এক শোক বার্তায় রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক এমপি বলেন, আমার কাছে খাইরুল ভাই ছিলেন একজন 'বীর বাহাদুর'। অকুতোভয় এই মানুষটি ছিলেন সাধারণ মানুষের শক্তি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শের ধারক, বাহক এবং মহামান্য রাষ্ট্রপতির রাজনৈতিক জীবনের নির্ভীক সহচর ছিলেন তিনি।তার মৃত্যুতে অষ্টগ্রাম বাসীর ন্যায় আমিও গভীরভাবে শোকাহত ও ব্যাথিত হয়েছি। তার মৃত্যতে অষ্টগ্রাম উপজেলার রাজনীতিতে অপূরণীয় ক্ষতি হয়ে গেল।

রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক এমপি শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে মহান রাব্বুল আলামিনের নিকট মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।

উল্লেখ্য, অষ্টগ্রাম উপজেলার সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ,উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এবং বর্তমান আওয়ামীলীগ নেতা খন্দকার খাইরুল আলম বেশ কিছুদিন যাবত মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ জনিত সমস্যায় ভূগছিলেন। 

সোমবার সন্ধ্যায় তিনি নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল প্রায় ৬৫ বছর।

পাঠকের মন্তব্য