রেমিট্যান্সে একের পর এক রেকর্ড গড়ছে বাংলাদেশ 

রেমিট্যান্সে একের পর এক রেকর্ড গড়ছে বাংলাদেশ 

রেমিট্যান্সে একের পর এক রেকর্ড গড়ছে বাংলাদেশ 

রেমিট্যান্স আয়ে একের পর এক রেকর্ড গড়ছে বাংলাদেশ। করোনা প্রকোপের মধ্যেও প্রবাসীরা গত মে মাসেও দেশে রেকর্ড পরিমাণ অর্থ পাঠিয়েছেন। চলতি অর্থ বছরের (জুলাই-মে) ১১ মাসে রেমিট্যান্স এসেছে দুই হাজার ২৮৩ কোটি ৭০ লাখ ডলার। যা গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ৩৯ দশমিক ৪৯ শতাংশ বা ৭৭৮ কোটি ডলার বেশি। গত অর্থ বছরের প্রথম ১১ মাসে দেশে রেমিটেন্স এসেছিল এক হাজার ৬৩৭ কোটি ২০ লাখ ডলার। 

মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে। প্রতিবেদনে দেখা গেছে, প্রবাসীরা গত মাসে রেমিট্যান্স পাঠিয়েছে ২১৭ কোটি ১০ লাখ মার্কিন ডলার। ২০২০ সালের মে মাসে প্রবাসীরা রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন ১৫০ কোটি ৫০ লাখ ডলার। 

প্রবাসীদের পাঠানো এই রেমিট্যান্স বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বাড়ানোর ক্ষেত্রে ভুমিকা রাখছে। ১লা জুন বিকাল নাগাদ বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৪৫ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে গেছে। এর আগে প্রবাসীরা গত এপ্রিল মাসে রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন ২০৬ কোটি ৭০ লাখ ২০ হাজার ডলার। যা আগের বছরের এপ্রিলের তুলনায় ৯৭ কোটি ডলার বেশি। 

গত বছর এপ্রিল মাসে রিমট্যান্স এসেছিল ১০৯ কোটি ২৯ লাখ ৬০ হাজার। গত মাসের ঈদ থাকায় প্রবাসীরা বেশি বেশি রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। এর আগে করোনা ভাইরাসের প্রকোপের মধ্যে গত বছরের জুলাই মাসে মাইলফলক রেমিট্যান্স পায় বাংলাদেশ। ওই মাসে প্রবাসীরা প্রায় ২৬০ কোটি ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছিলেন। 

পাঠকের মন্তব্য