পিঠে করে করোনা আক্রান্ত শ্বশুরকে হাসপাতালে নিলেন বউমা 

পিঠে করে করোনা আক্রান্ত শ্বশুরকে হাসপাতালে নিলেন বউমা 

পিঠে করে করোনা আক্রান্ত শ্বশুরকে হাসপাতালে নিলেন বউমা 

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন শ্বশুর। অসুস্থ শ্বশুরকে চিকিৎসার জন্য পিঠে করে হাসপাতালে নিয়ে গেলেন এক নারী। ভারতের আসাম রাজ্যে এই ঘটনাটি ঘটে। 

আসামের নওগাঁ জেলার বাসিন্দা ওই নারী। তার নাম নীহারিকা দাস। শ্বশুরকে পিঠে করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া নীহারিকা দাসের ছবি এখন সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে বেশ প্রশংসা কুড়াচ্ছে। আসামের অভিনেত্রী থেকে শুরু করে বিহার-মুম্বাই-চেন্নাইয়ের বিহু মানুষ প্রশংসা করেছেন নীহারিকার। কিন্তু এসবে নজর রাখার অবস্থায় নেই নীহারিকার। তিনিও যে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। 

জানা গেছে, ওই নারীর স্বামী কর্মসূত্রে রাজ্যের বাহিরে থাকেন। বাড়িতে বৃদ্ধ শ্বশুর থুলেশ্বরের দেখাশোনা, সংসার সামলানো সব কাজ করে এই নীহারিকা। শ্বশুরকে হাসপাতালে নিতে অনেকের নিকট সাহায্য চেয়েও পাননি নীহারিকা। বাধ্য হয়েই নিজের পিঠে তুলে নেন করোনা আক্রান্ত শ্বশুরকে। 

হাসপাতালে গিয়েও শবশুরের সেবা করছিলেন নীহারিকা। সেই ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে। 

শ্বশুরকে তিনি বরাবর অভয় দেন, এটা আইসিইউ দেউতা (বাবা), ভয় পাবেন না। বুড়ো হয়ে ধুঁকেছেন, ডেকা (যুবক) হয়ে বের হবেন। দেউতা আপনার কোনপ্রকার চিন্তা নেই। কাঁদবেন না একদম। আমি তো আছি আপনার ভরসা। আর আমার আছেন আপনি। সুত্র- আনন্দবাজার পত্রিকা 

পাঠকের মন্তব্য