Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮ , সময়- ৭:১৬ পূর্বাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
রাখাইনে এখনো রোহিঙ্গাদের জন্য নিরাপদ পরিবেশ তৈরি হয়নি : রিচার্ড অলব্রাইট নির্বাচনী আচরণবিধি মানছেন না সম্ভাব্য প্রার্থীরা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারই 'নির্বাচনকালীন সরকার'   মঙ্গলবার পর্যন্ত মনোনয়নপত্র জমা নিবে আওয়ামী লীগ  আন্তর্জাতিক পুরস্কারে মনোনীত শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী প্রথম দিনে ১৩২৬টি মনোনয়ন ফরম বিক্রি করেছে বিএনপি  পাঁচ বিভাগের ৭টি আসনে একক প্রার্থী পাচ্ছে আওয়ামী লীগ সিইসিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন বদরুদ্দোজা চৌধুরী ২৩ নয়, এখন ৩০  ৩০০ সংসদীয় আসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের নির্দেশনা দিয়েছেন ইসি 

দেশের হাইটেক পার্কগুলো স্থাপিত হলে ২০ লাখ লোকের কর্মসংস্থান হবে : মোস্তাফা জব্বার 


প্রজন্মকণ্ঠ অনলাইন রিপোর্ট

আপডেট সময়: ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ১:২৮ এএম:
দেশের হাইটেক পার্কগুলো স্থাপিত হলে ২০ লাখ লোকের কর্মসংস্থান হবে : মোস্তাফা জব্বার 

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, দেশের ১২টি হাইটেক স্থাপনের যে উদ্যোগ নিয়েছে তা বাস্তবায়িত হলে প্রযুক্তি খাতে ২০ লাখ লোকের কর্মসংস্থান হবে। বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ ও সিলেট চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত ‘সিলেট হাইটেক পার্কে বিনিয়োগে উদ্যোক্তাদের উদ্ভুদ্ধকরণ’ শীর্ষক এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ইমরান আহমদের সভাপতিত্বে সেমিনারে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর মূখ্যসচিব মোঃ নজিবুর রহমান, মহাপরিচালক-১ মোঃ সালাহ উদ্দিন, হাইটেক পার্ক এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম, সিলেট হাইটেক পার্কের পরামর্শক স্থপতি ও প্রকৌশলী ইকবাল হাবিব, প্রকল্প পরিচালক ব্যারিষ্টার গোলাম সারওয়ার ভূঁইয়া, সিলেটের ভারপ্রাপ্ত বিভাগীয় কমিশনার মৃণাল কান্তি দে, সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি কামরুল আহসান বিপিএম, সিলেট সিটি করপোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী প্রমুখ। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি শিপার আহমদ।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার স্বপ্নের ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন স্বপ্ন নয়, বাস্তব। তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বাংলাদেশ এখন যে কোনো দেশের জন্য অনুকরণীয়। এক সময় যা চিন্তাও করা যেতো না, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যুগোপযোগী সিদ্ধান্ত আর নিরলস পরিশ্রমে আজ আমরা তা অর্জন করতে পেরেছি।

মন্ত্রী বলেন, ২০০৮ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের যে ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখিয়েছেন এটা এখন বাস্তবে রুপ নিচ্ছে। এখান থেকে আমাদের ডিজিটাল রুপান্তরের পথে আরো এক ধাপ এগিয়ে যাওয়া সম্ভব হবে। তিনি বলেন, ভারতের ব্যাঙ্গালোরের আদলে সিলেটও হয়ে উঠবে ডিজিটাল শহর। সিলেটকে স্মার্ট সিটি হিসেবে গড়ে তুলতে তিনি সংশ্লিষ্ট সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

মন্ত্রী বলেন, হাইটেক স্থাপনের পুরোপুরি বাস্তবায়িত হলে স্থানীয় জনগণের জীবন মানে আসবে ব্যাপক পরিবর্তন। ইতোমধ্যে এই হাইটেক পার্ককে ঘিরে সিলেটে অবকাঠামোগত যে উন্নয়ন হচ্ছে তা দেখে সহজেই অনুমান করা যায় প্রধানমন্ত্রীর পরিকল্পনা যুগোপযোগী এবং আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর। তিনি স্থানীয় উদ্যোক্তাদের আশ্বস্ত করে বলেন, হাইটেক পার্কে বিনিয়োগে সকল ধরণের সহায়তা করতে সরকার প্রস্তুত। এইখাতে বিনিয়োগ করে কাউকে ভুগতে হবেনা।

তিনি বাংলাদেশকে সত্যিকার অর্থে ডিজিটাল বাংলাদেশে রুপান্তরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বধীন সরকারকে আবারো নির্বাচিত করার আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানের সভাপতি ও সিলেট-৪ আসনের সংসদ সদস্য ইমরান আহমেদ বলেন, বর্তমান সরকার বাংলাদেশে বিনিয়োগের পরিবেশ ফিরিয়ে এনেছে। বিদেশী বিনিয়োগের পাশপাশি প্রবাসীরাও আকৃষ্ট হচ্ছেন।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top