Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮ , সময়- ১০:১২ পূর্বাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
জঙ্গি আস্তানা : নরসিংদীর শেখেরচর ও মাধবদীতে দুটি বাড়ি ঘিরে রেখেছে পুলিশ  ওয়েজবোর্ডের আওতায় আসছে অনলাইন নিউজপোর্টাল রামকৃষ্ণ মিশনে দুর্গা আরাধনা দেখলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তারেক জিয়াকে বিএনপি প্রধানের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেবার জন্য অনুরোধ করেছে আন্তর্জাতিক মহল নিজস্ব প্রস্তাবনা উপস্থাপন করতে না দেয়ায় অপমানিত বোধ করেছি : মাহবুব তালুকদার  ময়মনসিংহ পৌরসভাকে সিটি কর্পোরেশন ঘোষণা, সর্বস্তরে আনন্দের বন্যা গ্রেনেড হামলার মামলার রায়ে আমরা সন্তুষ্ট কিন্তু কিছু আপত্তি আছে : শাহরিয়ার আলম ড. কামাল বিএনপিতে যোগ দিয়েছেন, আলহামদুলিল্লাহ : খালেদা জিয়া জাফরুল্লাহর বিরুদ্ধে সেনাকর্মকর্তার থানায় সাধারণ ডায়েরি, তদন্তে ডিবি কেন কমিশন সভা বর্জন করেছেন কমিশনার মাহবুব তালুকদার

জননেত্রী শেখ হাসিনা কার উপর অবিচার করেছেন এমন কোন প্রমান নেই


মোকতেল হোসেন মুক্তি

আপডেট সময়: ৫ নভেম্বর ২০১৭ ৭:৩৩ পিএম:
জননেত্রী শেখ হাসিনা কার উপর অবিচার করেছেন এমন কোন প্রমান নেই

ফেসবুক স্ট্যাটাস : ইউনুস হিলারী খালেদা ও বিশ্ব ব্যাংকের বানোয়াট ভিত্তিহীন দুর্নীতির অভিযোগ ছিল বাংলাদেশ বাঙ্গালী জাতি এবং আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে একটি গভীর পাকি আই এস আই'র ষড়যন্ত্র। সে সকল মিথ্যাচার যদি ভিত্তিহীন প্রমানিত হয়ে থাকে, তাহলে বাঙ্গালী জাতি বিশেষ করে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার সততার জয় হয়েছে। 

এর মূল অভিযোগ ছিল সাবেক যোগাযোগ মন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেনের বিরুদ্ধে কয়েকশত কোটি টাকার দুর্নীতি। যা বিশ্ব কানাডীয় আদালতে ভুয়া উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে প্রমানিত হয়। অন্যদিকে এ অভিযোগের কারনেই সৈয়দ আবুল হোসেনকে মন্ত্রী পরিষদ থেকে পদত্যাগের নির্দেশ প্রদান করেন মাননীয় প্রধান মন্ত্রী। শেখের বেটি পিতার মতই নীতির সাথে কোন আপোষ করেননি।

সকল অভিযোগ ভুয়া বানোয়াট ও ভিত্তিহীন প্রমানিত হলেও সৈয়দ আবুল হোসেনের স্বীয় পদে স্থলাভিষিক্ত হতে পারেন নি। কারন তাঁর জাতীয় সংসদের সদস্য পদটিও দেয়া হয় আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিমকে। যা ছিল সৈয়দ আবুল হোসেনের জন্য অত্যন্ত লজ্জাস্কর অপমানজনক এবং বিনা অপরাধে জেলখাটাসম একটূ তথ্য বিভ্রাটের মাসুল।

জননেত্রী শেখ হাসিনা কার উপর অবিচার করেছেন এমন কোন প্রমান নেই। মাদারীপুর কালকিনি৩ আসনের লক্ষ লক্ষ মানুষের প্রাণপ্রিয় বিদ্যা উৎসাহী দাতা ধনবীর সৈয়দ আবুল হোসেনের প্রতি এবারও তিনি অবিচার করবেন না ।

ফিরিয়ে দেবেন সৈয়দ আবুল হোসেনের হারানো মান মর্যাদা রাষ্ট্রীয় অবস্থান কারন সৈয়দ আবুল হোসেন, শেখ হাসিনার সরকার তথা সার্বিকভাবেই বাঙ্গালী জাতির উপর একটি প্রতিহিংসামূলক সিদ্ধান্ত নিয়েছিল বিশ্বব্যাংক। 

শেখের বেটি বিশ্বব্যাংক কে বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করে "পদ্মাসেতু নিজস্ব অর্থায়নে নির্মাণ" মত বড় ধরনের একটি চ্যালেন গ্রহণ করেছিলেন যা' আজ বিশ্বব্যাপী সর্বত্র আলোচিত প্রশংসিত এবং যুগান্তকারী পদক্ষেপ হিসেবে সর্বজনবিদিত ও গ্রহীত। 

আমরা পদ্মাসেতু অতি দ্রুত সম্পন্ন করার পাশাপাশি আমাদের কালকিনির কৃতি সন্তান গর্বিত সফল ব্যবসায়ী সাবেক মন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেনের মূল্যানের প্রত্যাশা করি।  জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু। 

ফেসবুক স্ট্যাটাস

 

 


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top