Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, শুক্রবার, ২০ জুলাই ২০১৮ , সময়- ৬:৩৯ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
নির্বাচনে জনগণের ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটবে, আবারও আ'লীগ জোয়ারে ভাসবে : ওবায়দুল কাদের শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের পরিদর্শন প্রতিবেদন বস্তুনিষ্ঠ ও সঠিক নয় : বাংলাদেশ ব্যাংক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আওয়ামী লীগের গণসংবর্ধনা আগামীকাল বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে নয়াপল্টনে নেতাকর্মীদের জমায়েত প্রধানমন্ত্রীর গণসংবর্ধনা শনিবার, যানবাহন চলাচলে ডিএমপি’র নির্দেশনা রাজশাহী, সিলেট ও বরিশাল সিটি নির্বাচন নিয়ে সরব বিদেশিরা  বাংলাদেশ ব্যাংকের ভল্টের নিরাপত্তা : ব্যাপক তোলপাড় সারাদেশ  শর্তসাপেক্ষে শান্তিপূর্ণ সমাবেশ কর্মসূচী করার অনুমতি পেল বিএনপি অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমকে আবারো হত্যার হুমকি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে গণভবনে জার্মানীর পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর সৌজন্য সাক্ষাত

আগৈলঝাড়ায় হাসপাতাল প্রধানের অবহেলায় স্বাস্থ্য সহকারির অকাল মৃত্যুতে বিচার দাবি


অপূর্ব লাল সরকার, আগৈলঝাড়া (বরিশাল)

আপডেট সময়: ১১ জানুয়ারী ২০১৮ ৫:২৮ পিএম:
আগৈলঝাড়ায় হাসপাতাল প্রধানের অবহেলায় স্বাস্থ্য সহকারির অকাল মৃত্যুতে বিচার দাবি

বরিশালের আগৈলঝাড়ায় হাসপাতাল প্রধানের অবহেলায় অকালে ঝড়ে গেল এক স্বাস্থ্যকর্মীর প্রাণ। এঘটনায় জনমনে চরম ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। উর্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে ঘটনা তদন্তপূর্বক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগীর পরিবার। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর নাতি সেরনিয়াবাত আশিক আবদুল্লাহ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে এ ঘটনায় বিচারের আশ্বাস দিয়েছেন।

উপজেলার বাকাল ইউনিয়নের কোদালধোয়া গ্রামের রাজবিহারী সরকারের ছেলে ও উপজেলা স্বাস্থ্য সহকারি রামানন্দ সরকার (৪০) গত ৮ জানুয়ারী রাতে হঠাৎ করে অসুস্থ হওয়ায় চিকিৎসার জন্য তাকে ওইদিন ভোর রাতে আগৈলঝাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে স্বজনেরা। কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. আব্দুল্লাহ আল মামুন তাৎক্ষণিক রোগীকে চিকিৎসা ও ব্যবস্থাপত্র প্রদান করেন। পরদিন ৯ জানুয়ারী অসুস্থ রামানন্দ’র অবস্থার অবনতিতে তার স্বজনেরা হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আলতাফ হোসেনকে একাধিকবার জানিয়ে রোগী দেখার অনুরোধ করলেও ডা. আলতাফ হোসেন ওইদিন একবারও রামানন্দের কাছে যাননি বলে অভিযোগ করেন রামানন্দর স্ত্রী সাবেক ইউপি সদস্য ও আওয়ামীলীগ নেত্রী বনিতা বসু।

সারাদিন রামানন্দ চিকিৎসা বিহীন থেকে রাত ১১টায় ডা. তানভির আহম্মেদ ডিউটিতে এসে রোগীর অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করেন। বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে মৃতের স্বজনেরা জানান, চিকিৎসকেরা তাদের বলেছেন যে, রোগী ভর্তিতে অনেক দেরী হয়ে গেছে। চিকিৎসারত অবস্থায় বুধবার সকাল সাড়ে এগারটায় রামানন্দ মারা যায়। বিকেলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছোট নাতি, বরিশাল জেলা আওয়ামীলীগ নেতা সেরনিয়াবাত আশিক আবদুল্লাহ রামানন্দের বাড়ি গিয়ে তার কফিনে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। এসময় মৃতের পরিবারের স্বজন ও স্থানীয়রা তার কাছে ঘটনার তদন্ত সাপেক্ষ দায়ী চিকিৎসক ডা. আলতাফ হোসেনের বিচার দাবি করেন। আশিক আবদুল্লাহ তাদের বিচারের আশ্বাস প্রদান করেন। মৃতের স্বজনেরা অভিযোগ করেন, ডা. আলতাফ হোসেন ও নার্সরা রোগীর চিকিৎসা করলে বা আগেই বরিশাল প্রেরণ করলে অকালে রামানন্দের প্রাণ যেত না।

অভিযুক্ত ডা. আলতাফ হোসেন বলেন, রোগী ভর্তির পর মঙ্গলবার সকল স্বাস্থ্য সহকারীদের নিয়ে তিনি মিটিং-এ করছিলেন।

সিভিল সার্জন ডা. মনোয়ার হোসেন জানান, স্বাস্থ্য সহকারি রামানন্দ সরকারকে বরিশাল মেডিকেলে ভর্তির পর তাকে ইউএইচএএফপিও ডা.আলতাফ হোসেন ঘটনা জানিয়েছেন। তিনি যখন খবর নিয়েছেন ততক্ষণে রামানন্দ মারা গেছেন।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top