Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮ , সময়- ১১:১৩ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
এত বেশী কেন, বাংলাদেশে মোবাইল ইন্টারনেটের দাম ? মামলার তারিখ এলেই খালেদা জিয়া অসুস্থ হয়ে পড়েন : শেখ হাসিনা মামলার তারিখ এলেই খালেদা জিয়া অসুস্থ হয়ে পড়েন : শেখ হাসিনা মামলার তারিখ এলেই খালেদা জিয়া অসুস্থ হয়ে পড়েন : শেখ হাসিনা তালিকাচ্যুতির পাইপ লাইনে আরও ২৫ কোম্পানি বেগম খালেদা জিয়ার জামিন না মঞ্জুর, ২৬ জুলাইয়ের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ কুষ্টিয়ার ঘটনায় যারাই জড়িত থাকুক, খুঁজে বের করা হবে : ওবায়দুল কাদের লাল ফিতা, সাদা ফিতার দৌরাত্ম্য বন্ধ সরকারি কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান : প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদ ইন্টারনেট ব্যবহারের বিস্তৃতির সঙ্গে সঙ্গে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ

বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর নগদ জমা সংরক্ষণ-সিআরআর ১ শতাংশ কমানোর সিদ্ধান্ত


নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রজন্মকণ্ঠ

আপডেট সময়: ১ এপ্রিল ২০১৮ ৯:৩৯ পিএম:
বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর নগদ জমা সংরক্ষণ-সিআরআর ১ শতাংশ কমানোর সিদ্ধান্ত

তারল্য সংকট কাটাতে এবার বাংলাদেশ ব্যাংকে আমানতের বিপরীতে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর নগদ জমা সংরক্ষণ-সিআরআর ১ শতাংশ কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। রোববার বেসরকারি ব্যাংক মালিকদের সঙ্গে বৈঠক শেষে এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

এতে করে, বেসরকারি ব্যাংকে নগদ অর্থপ্রবাহ বাড়ার পাশাপাশি সুদহার কমবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা। তবে কোনো মূল্যস্ফীতি হবে না বলে আশা অর্থমন্ত্রীর। ব্যাংক উদ্যোক্তাদের নিয়ে রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে জরুরি সভায় বসেন অর্থমন্ত্রী।

সরকারি আমানতের অর্ধেক পাওয়ার পর আরও বড় ধরনের নিয়ন্ত্রণমূলক ছাড় পেয়েছে বেসরকারি ব্যাংকগুলো। এখন থেকে ব্যাংকগুলোর আমানতের ওপর কেন্দ্রীয় ব্যাংকে যে নগদ টাকা জমা রাখে (সিআরআর) তাও ১ শতাংশ কম রাখতে হবে। বর্তমানে ব্যাংকগুলো সাড়ে ৬ শতাংশ টাকা নগদ জমা রাখে। বৈঠকের তথ্য।

সভা শেষে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘সরকারি যে সিদ্ধান্ত তা দিয়ে দিয়েছি। সরকারি টাকার অর্ধেক বেসরকারি ব্যাংকে রাখা যাবে। অন্য সুবিধা আমি দিতে পারি না। ব্যাংক খাতের নিয়ন্ত্রক গভর্নর। আমি প্রভাবিত করতে পারি। এ নিয়ে বিস্তর আলোচনা হয়েছে। ব্যাংকগুলোকে সাড়ে ৬ শতাংশ নগদ জমা রাখতে (সিআরআর) হয়, তা ১ শতাংশ কমানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। এতে মূল্যস্ফীতিতে কোনো প্রভাব পড়বে না।’

এরফলে বেসরকারি ব্যাংকগুলোতে নগদ অর্থের প্রবাহ বাড়লেও ঠিক কবে থেকে সুদহার কমবে সে বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোন সিদ্ধান্ত দিতে পারেনি বিএবি।

তবে সিআরআর কমানোর এক মাসের মধ্যে বিএবি সুদের হার কমানোর প্রতিশ্রতি দিয়েছে বলে সকালে আরেকটি অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী জানান। বেসরকারি ব্যাংকগুলোতে নগদ অর্থের প্রবাহ বাড়লে তা মূল্যস্ফীতিকে উসকে দিবে কিনা সে আশংকা উড়িয়ে দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী। নতুন এ সিদ্ধান্তের ফলে, আগের সাড়ে ৬ শতাংশের জায়গায়, বেসরকারি ব্যাংকগুলোকে এখন আমানতের বিপরীতে সাড়ে ৫ শতাংশ নগদ জমা সংরক্ষণ করতে হবে।

এ বৈঠকে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির, উদ্যোক্তাদের সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকসের (বিএবি) চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম মজুমদার, প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার বেসরকারি খাত উন্নয়নবিষয়ক উপদেষ্টা ও আইএফআইসি ব্যাংকের চেয়ারম্যান সালমান এফ রহমান, প্রিমিয়ার ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সাবেক সাংসদ এইচ বি এম ইকবাল, ঢাকা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ মাহবুবুর রহমানসহ আর্থিক খাতের শীর্ষ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

গতকাল বেসরকারি খাতের ব্যাংকগুলোর চেয়ারম্যান, ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ সরকারের আর্থিক খাতের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন অর্থমন্ত্রী।

সেখানে ব্যাংক উদ্যোক্তাদের চাপে ব্যাংকের অর্থসংকট মেটাতে সরকারি তহবিলের ৫০ শতাংশ অর্থ বেসরকারি ব্যাংকে রাখা যাবে বলে সিদ্ধান্ত হয়। বিদ্যমান নিয়মে সরকারি তহবিলের ২৫ শতাংশ পর্যন্ত অর্থ বেসরকারি ব্যাংকে রাখা যায়।

বর্তমান সরকারের চলতি মেয়াদে ব্যাংক খাতের সংকট মেটাতে আর্থিক খাতের শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তাদের নিয়ে বৈঠক এটিই প্রথম।

এদিকে, আজ- সকালে তারল্য সংকট মেটাতে সরকারি আমানতের ৫০% বেসরকারি ব্যাংকে রাখার সিদ্ধান্ত অতি দ্রুত কার্যকর করা হবে জানান অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। সকালে রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে জনতা ব্যাংকের বার্ষিক সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

সরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে বাধ্যতামূলকভাবে তাদের পয়সার ২৫ শতাংশ বেসরকারি ব্যাংকে রাখতে হতো সেটি বাড়ানোর চিন্তা করা হচ্ছে—এ কথা জানিয়ে তিনি বলেন, কালকে সিদ্ধান্ত দিয়েছি এবং সেটি অতিদ্রুত কার্যকর হচ্ছে যে বেসরকারি ব্যাংকে সরকারি প্রতিষ্ঠানের এই বাধ্যবাধকতা ৫০ শতাংশ করা হবে।

বর্তমান নিয়ম অনুযায়ী, সরকারি আমানতের ৭৫ শতাংশই রাখতে হয় রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোয়। বাকি ২৫ শতাংশ পায় বেসরকারি ব্যাংকগুলো। সরকারি আমানতের অর্ধেক বেসরকারি ব্যাংকে রাখতে দাবি জানিয়ে আসছিল বেসরকারি ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকরা।


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top