Projonmo Kantho logo
About Us | Contuct Us | Privacy Policy
ঢাকা, রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮ , সময়- ৬:৪৪ অপরাহ্ন
Total Visitor: Projonmo Kantho Media Ltd.
শিরোনাম
নির্বাচনকালীন সম্ভাব্য নাশকতা মোকাবিলায় সর্বাত্মক প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার  একজন শিশুকে পিইসি পরীক্ষার জন্য যেভাবে পরিশ্রম করতে হয়, সত্যিই অমানবিক : সমাজকল্যাণমন্ত্রী নির্বাচনকে সামনে রেখে আদর্শগত নয়, কৌশলগত জোট করছে আওয়ামী লীগ : সাধারণ সম্পাদক থার্টিফার্স্ট উদযাপন নিষিদ্ধ : স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠানের স্বার্থে পেশাদারিত্ব বজায় রাখবে সেনাবাহিনী  মহাজোটের সঙ্গে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নির্বাচনে যাওয়ার শিগগিরই আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসছে  প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা শুরু আজ  ভোট পর্যবেক্ষণের জন্য আবেদন শেষ তারিখ ২১ নভেম্বর  আ'লীগ যত রকম ১০ নম্বরি করার করুক, ভোট দেবো, ভোটে থাকব : ড. কামাল হোসেন মহাজোটের আসন বণ্টনের আলোচনা চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর নিকট চিঠি  

চিত্রগ্রাহক শহিদুল আলম এখন কারাগারে 


নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রজন্মকণ্ঠ

আপডেট সময়: ১৩ আগস্ট ২০১৮ ১০:২৬ পিএম:
চিত্রগ্রাহক শহিদুল আলম এখন কারাগারে 

স্বনামধন্য চিত্রগ্রাহক শহিদুল আলমকে আজ সোমবার কারাগারে পাঠানো হয়েছে৷ তার বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে উস্কানির অভিযোগ আনা হয়েছে৷ বার্তা সংস্থা এএফপিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ পুলিশ৷ ডিবি পুলিশের উপ-কমিশনার (উত্তর) মশিউর রহমানের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থাটি জানিয়েছে, রোববার তাকে ঢাকা চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) কোর্টে নেয়া হলে আদালত তাকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন৷ 

গণমাধ্যমে দেয়া পুলিশের তথ্য অনুযায়ী, শহিদুলের বিরুদ্ধে অভিযোগের তদন্ত চলাকালে তাকে কারাগরেই রাখার আর্জি জানিয়েছে পুলিশ৷

এদিকে, শহিদুলের আইনজীবী জ্যোতির্ময় বড়ুয়া ইংরেজি দৈনিক দ্য ডেইলি স্টারের কাছে দাবি করেছেন, সোমবার তাকে কোর্টে তোলার কথা ছিল, কিন্তু তা না করে একদিন আগেই তা করা হয়েছে৷ তবে মশিউর রহমান অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, রিমান্ডের পর মেডিকেল চেকআপ করে নির্ধারিত সময়েই শহিদুলকে আদালতে তোলা হয়েছে৷

শহিদুলের বিরুদ্ধে কাতারভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম আল জাজিরা ও সামাজিক গণমাধ্যমে অসত্য ও উস্কানিমূলক তথ্য ছড়ানোর অভিযোগ রয়েছে৷ বিতর্কিত তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন মুক্তচিন্তা বিরোধী, নিপীড়নমূলকতাঁর বিরুদ্ধে মামলা করে পুলিশ৷

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সময় গত ৫ আগষ্ট তাঁকে তাঁর ধানমণ্ডির বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়৷

এরপর পুলিশ তার দশ দিনের রিমাণ্ড চাইলে আদালত সাত দিনের রিমাণ্ড মঞ্জুর করেন৷ পুলিশ হেফাজতে নির্যাতনের অভিযোগও আনেন ৬৩ বছর বয়সি এই প্রথিতযশা ফটোগ্রাফার৷

উচ্চ আদালত তার স্বাস্থ্য পরীক্ষার নির্দেশ দিলে গত বুধবার সকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল হাসপাতালে নেয়া হয়৷ স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে দুপুরে আবার গোয়েন্দা হেফাজতে ফিরিয়ে আনা হয়৷

এদিকে, জেনেভায় প্রকাশিত এক বিবৃতিতে শহিদুলকে মুক্তির জন্য বাংলাদেশের কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার বিশেষজ্ঞরা৷ এছাড়া, পুলিশের হেফাজতে তাঁর ওপর যেসব নির্যাতনের অভিযোগ এসেছে সেগুলো তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ারও দাবি জানিয়েছেন৷

শহিদুল আলমের তোলা ছবি পৃথিবীর বিখ্যাত সব পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে৷ তিনি গ্যালারি দৃক এবং ফটোগ্রাফির স্কুল পাঠশালা'র প্রতিষ্ঠাতা৷ 

প্রসঙ্গত, ঢাকায় ২৯ জুলাই সড়ক দুর্ঘটনায় দুই স্কুলশিক্ষার্থী নিহতের ঘটনার পর নিরাপদ সড়কের দাবিতে রাস্তায় নেমে আসে বিভিন্ন স্কুল এবং কলেজের শিক্ষার্থীরা৷ এরপর কয়েকদিন রাজপথে বিভিন্ন গাড়িচালকের লাইসেন্স পরীক্ষাসহ নানা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালন করে তারা৷ এক পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের উপর পুলিশ এবং ‘সরকার দলের কর্মীরা' চড়াও হলে ছাত্র বিক্ষোভ সহিংস রূপ নেয়৷ স্কুল শিক্ষার্থীদের প্রতি সংহতি প্রকাশ করে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাও রাজপথে বিক্ষোভ শুরু করে৷ হেলমেট পরা দুষ্কৃতিকারীরা সাংবাদিকদের ওপরও হামলা চালায়৷ কয়েকদিনের এই বিক্ষোভে কয়েকশত শিক্ষার্থীর পাশাপাশি সাংবাদিক, পুলিশ এবং ছাত্রলীগের কর্মীরা আহত হন৷ বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তারেরও ঘটনা ঘটে৷


আপনার মন্তব্য লিখুন...

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনি
Top